টোকিওতে উদ্যাপিত মহান শহীদ দিবস ও মাতৃভাষা দিবস



২১শে ফেব্রুয়ারী ২০১৫, শনিবার সকালে টোকিওতে স্থাপিত শহীদ মিনারে যথাযোগ্য মর্যদায় মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদ্যাপিত হয়।

মায়ের ভাষার দাবিতে বাঙালীর আত্মত্যাগের মহিমান্বিত এক দিন । যেদিন সালাম, বরকত, রফিক, জব্বারের বুকের রক্তে ভেসেছিল ঢাকার রাজপথ । বাঙালীর রক্তস্নাত ভাষা আন্দোলনের স্বীকৃতি দিয়ে জাতিসংঘের সহযোগী সংস্থা ইউনেস্কো ১৯৯৯ সালের ১৭ই নভেম্বর ২১শে ফেব্রুয়ারীকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষণা করেন । এরপর থেকেই যথাযোগ্য মর্যাদায় সারা বিশ্বে একযোগে পালিত হয়ে আসছে এই দিনটি ।

প্রচন্ড শীত উপেক্ষা করে বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্যদিয়ে দূর দূরান্ত থেকে আগত প্রবাসীদের উপস্থিততে প্রথমে জাপানস্থ বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন এবং পরে সকল রাজনৈতিক দল, সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন সহ পেশা জিবীরা শহীদ মিনারে পুস্পস্তবক অর্পণ করেন ৷ বিষ্ময়কর হলেও সত্য কতিপয় জাপানীজও উপস্থিত ছিলেন ৷ একই সাথে উপস্থিত ছিলেন বিভিন্ন পত্র-পত্রিকার প্রবাসী সাংবাদিক ও টিভি রিপোর্টার ৷

পাতাটি ২৭০০ বার প্রদর্শিত হয়েছে।


নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে এমআরপি প্রদানে আশাবাদী রাষ্ট্রদূত মাসুদ বিন মোমেন

রাহমান মনি:: প্রযুক্তির উৎকর্ষতায় উন্নত বিশ্বের দেশগুলো অনেক আগে থেকেই হাতে লেখার বদলে যন্ত্রের মাধ্যমে…


টোকিওতে উদ্যাপিত মহান শহীদ দিবস ও মাতৃভাষা দিবস

২১শে ফেব্রুয়ারী ২০১৫, শনিবার সকালে টোকিওতে স্থাপিত শহীদ মিনারে যথাযোগ্য মর্যদায় মহান শহীদ দিবস ও…


জাপানে বৈশাখী মেলা

জাপানে বাংলা নববর্ষ বরণ উপলক্ষে পহেলা বৈশাখ উদযাপন স্বাধীনতার পর থেকেই ঘরোয়াভাবে শুরু হয়েছিল বাংলাদেশ…


জাপানে অনুষ্ঠিত হলো দুই প্রজন্মের মিলন মেলা

উৎসাহ উদ্দীপনা, ব্যাপক অংশগ্রহণ এবং উৎসবমুখর পরিবেশে জাপানে পালিত হয়েছে দুই প্রজন্মের মিলন মেলা খ্যাত…