পিলখানা হত্যাকাণ্ডের পূর্ণাঙ্গ রায় আজ



পিলখানা হত্যা মামলার ডেথ রেফারেন্স ও জেল আপিলের অসমাপ্ত রায় আজ। রোববার আংশিক রায় দেয়া হয়েছে। আজ সোমবার পূর্ণাঙ্গ রায় পড়া শেষ হবে।
পিলখানায় হত্যাকাণ্ডের মামলার বিচার প্রচলিত আদালতে হলেও, বিদ্রোহের বিচার হয়েছে সীমান্ত রক্ষা বাহিনীর নিজস্ব আইনে, যাতে সাজা হয় প্রায় ছয় হাজার
জওয়ানের।
 
২০০৯ সালের ২৫ এবং ২৬শে ফেব্রুয়ারি পিলখানায় সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদর দপ্তরে বিদ্রোহের ঘটনায় ৫৭ সেনা কর্মকর্তাসহ ৭৪ জন প্রাণ হারান।
পিলখানার বাইরেও দেশের বিভিন্ন ব্যাটালিয়ানে ছড়িয়ে পড়ে এ বিদ্রোহ। সেসব ঘটনায় বিডিআর আইনে মোট ৫৭টি বিদ্রোহের মামলা হয়।
 
নিজস্ব তদন্তের পাশাপাশি এসব মামলার বিচারকাজও পরিচালিত হয় বিডিআর কর্মকর্তাকে প্রধান বিচারক করে। প্রধান বিচারককে অ্যাটর্নি জেনারেলের
একজন প্রতিনিধি এবং বিডিআর কর্তৃপক্ষকে আইনি সহায়তা প্রদান করেন সরকার নিযুক্ত আইনজীবীরা। পাশাপাশি আসামিদের আইনি সহায়তার জন্যও তাদের
নিযুক্ত আইনজীবী ছিলেন আদালতে।  এসব মামলার বিচার কাজ পর্যবেক্ষণে সাংবাদিকসহ বিভিন্ন পেশাজীবীরাও আদালতে ছিলেন।
 
পিলখানায় যে দরবার হলে প্রথম বিদ্রোহ এবং হত্যার ঘটনা ঘটে, সেখানেই বসানো হয় একটি আদালত। পরে মামলা দ্রুত নিস্পত্তি করার জন্য পিলখানার
ভেতরেই আরেকটি আদালত বসানো হয়।
 
রাঙামাটির ১২ রাইফেল ব্যাটালিয়ন রাজনগরের ৯ জনের বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের ২৪শে অক্টোবর প্রথম বিচার শুরু হয় বিদ্রোহ মামলার। ২০১০ সালের ২রা মে এই
মামলার রায়ে প্রত্যেক আসামিকে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা দেয়া হয়। এছাড়া, বিদ্রোহের মামলার প্রথম রায় হয় পঞ্চগড়ের ২৫ রাইফেলস ব্যাটালিয়নের বিদ্রোহের
ঘটনায়।
 
এর প্রায় তিন বছর পর ২০১২ সালের ২০ অক্টোবর পিলখানার সদর ব্যাটালিয়নের রায় ঘোষণার মধ্য দিয়ে বিদ্রোহের বিচার শেষ হয়। পিলখানায় মোট ১১টি
ইউনিটের মামলায় ৪ হাজার ৩৩ জন সাজা পান, খালাস পান ৫৬ জন।
 
সবগুলো মামলার বিচার কাজ শেষ হতে সময় লাগে প্রায় তিন বছর, সর্বোচ্চ সাত বছরসহ বিভিন্ন মেয়াদে সাজা পান ৫ হাজার ৯২৬ জন।
 
পিলখানার বাইরে বিভিন্ন ব্যাটালিয়ন ও ইউনিটে এক হাজার ৯৫২ জনকে অভিযুক্ত করে অভিযোগপত্র দেওয়া হয়েছিল। বিচারে সাজা পান ১ হাজার ৮৯৩ জন,
খালাস পান ৫৯ জন। খালাসপ্রাপ্তরা প্রত্যেকেই চাকরি ফিরে পান। তবে বিডিআরে নয়, নাম বদল হয়ে যাওয়া বিজিবিতে।


টাইগারদের সহজ জয়

বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে টাইগাররা। ১৭১…


এক-এগারো আর আসতে দেয়া হবে না: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশে আর এক-এগারো আসবে না…


স্বাভাবিক রয়েছে পিঁয়াজের দাম: বানিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন. স্থানীয় বাজারে পিঁয়াজের মূল্য ক্রমশঃ হ্রাস পেয়ে এখন স্বাভাবিক পর্যায়ে পৌঁছেছে।…


২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধবাংলাদেশ গড়ে তুলবো

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশা ব্যক্ত করে বলেছেন, ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়ে স্বাধীনতার…


হাসিনা দেশকে উন্নয়নের অনন্য এক মাত্রায় নিয়ে গেছেন: আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিএনপি শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করছে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা…


ভারতে প্রধান বিচারপতিকে চার বিচারকের চ্যালেঞ্জ

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের চার জন বিচারক প্রকাশ্যে সংবাদ সম্মেলন করে প্রধান বিচারপতির কর্তৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করে…


নির্বাচনে নিবন্ধিত সব দলকে চান প্রধানমন্ত্রী

নির্বাচনে নিবন্ধিত সব দলকে চান প্রধানমন্ত্রী

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে নিবন্ধিত সব রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ…


আখেরি মোনাজাতে শান্তি কামনা

আখেরি মোনাজাতে শান্তি কামনা

ঈমানি জিন্দিগি, দেশ ও জাতির কল্যাণ, বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি, ঐক্য, সমৃদ্ধি কামনা করে আখেরি…


ফোরজি নিলামে বাধা নেই

ফোরজি নিলামে বাধা নেই

 ফোরজি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলামের জন্য আবেদন আহ্বান করে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি)…


১৫ জানুয়ারি বাংলাদেশে আসছেন প্রণব মুখার্জি

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি বর্ষীয়ান রাজনীতিক প্রণব মুখার্জি ১৫ জানুয়ারি সোমবার বাংলাদেশে আসছেন। ভারতের একমাত্র বাঙালি…


মাওলানা সাদকে ঘিরে তাবলীগের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

ভারতীয় উপমহাদেশের সুন্নি মুসলমানদের বৃহত্তম সংগঠন তাবলীগ জামাতের মধ্যে ক্ষমতার দ্বন্দ্ব আজ আবারও সামনে চলে…


২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলবো

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশা ব্যক্ত করে বলেছেন, ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়ে স্বাধীনতার…