সরকার নয়, বিএনপি ভাঙার জন্য বিএনপিই যথেষ্ট: কাদের



বিভক্তি আর দল ভাঙার ষড়যন্ত্র’ ঠেকাতে বিএনপির গঠনতন্ত্র পরিবর্তনের পর তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

তিনি বলেছেন, রাতের আঁধারে কলমের এক খোঁচায় গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করে কি প্রমাণ করতে চায় বিএনপি? এতে দলটির গণতান্ত্রিক চেতনাও প্রশ্নবিদ্ধ হয়েছে।
সোমবার বিকেলে ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে ‘নতুন সদস্য সংগ্রহ ও পুরনো সদস্যদের নবায়ন’ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ মন্তব্য করেন তিনি।
ওবায়দুল কাদের বলেন, হামলা-মামলার ভয়ে বিএনপি তাদের গঠণতন্ত্র পরিবর্তন করেছে। তাদের ইমানের জোর এতোই হালকা। পালকের মতো হালকা। এইভাবে নিজেই বিএনপি তাদের মুখোশ উন্মোচন করছে। তাই বিএনপিকে ভাঙার জন্য আওয়ামী লীগের প্রয়োজন নেই।

তিনি বলেন, বিএনপি তাদের গঠনতন্ত্র পরিবর্তন করেছে। রাতের অন্ধকারে কোন কাউন্সিল ছাড়াই এক কলমের খোঁচায় তারা তা করেছে। এর মাধ্যমে তাদের গঠনতন্ত্রের ৭ ধারা উধাও হয়ে গেছে। কী অদ্ভুত তাদের গঠনতন্ত্র! কী অদ্ভুত তাদের গণতন্ত্রের নমুনা! যেখানে এক বছর ১০ মাস অতিবাহিত হলেও তারা একবারের জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠক করতে পারেনি, সেখানে তারা নির্বাচন কমিশনে একটি প্রতিনিধি দল পাঠিয়ে অদ্ভুত প্রক্রিয়ায় গঠনতন্ত্র পরিবর্তন হয়ে গেলো!

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি’র গঠনতন্ত্রের ৭ ধারার (ক) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কোন সাংবিধানিক প্রক্রিয়ায় রাষ্ট্র দ্বারা দণ্ডিত কোনো ব্যক্তি দলের সদস্য হতে পারবেন না। (খ) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কেউ যদি দেউলিয়া হয় তবে সে দলের সদস্য হতে পারবেন না। (গ) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কেউ যদি উন্মাদ হন তবে সে দলের সদস্য হতে পারবে না। (ঘ) অনুচ্ছেদে বলা আছে, কেউ যদি সামাজিকভাবে সন্ত্রাসী বা কুখ্যাত বলে পরিগণিত হন, সে দলের সদস্য হতে পারবেন না। এখন গঠণতন্ত্র সংশোধনের মাধ্যমে এই ৭ ধারা বাদ দেওয়ার ফলে সকল দণ্ডিত, দেউলিয়া, উন্মাদ ও কুখ্যাত সন্ত্রাসী বিএনপি’র সদস্য হতে পারবে। এখন বিএনপিকে চিনে নিন। এই হলো বিএনপি। এই হলো তাদের গণতন্ত্র ও গঠণতন্ত্র।

বিএনপি সরকারের বিরুদ্ধে আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে এখন আদালতের বিরুদ্ধে আন্দোলনের প্রস্তুতি নিচ্ছে। আদালতের বিরুদ্ধে যাচ্ছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের আরও বলেন, আমরা তো খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করিনি। মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

আমরা তো খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে পাল্টাপাল্টি করছি না। অথচ আদালতের রায় তাদের বিরুদ্ধে গেলে তারা তা মানবেন না বলে ঘোষণা দিয়েছে। সরকরার কি মামলা করেছে? তবু তারা সরকারের বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করছে। আমরা বলেছি, খালেদা জিয়ার রায় কী হবে তা আদালতই জানে। আদালত সম্পূর্ণ স্বাধীন।

ঢাকা-১০ আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার ফজলে নূর তাপসের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন দলের প্রচার সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত, সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মোর্শেদ কামাল প্রমুখ।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

রোহিঙ্গাদের উপস্থিতি আর্থ-সামাজিক চাপ সৃষ্টি করেছে : প্রধানমন্ত্রী



প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, বিপুলসংখ্যক রোহিঙ্গার উপস্থিতির কারণে বাংলাদেশ ব্যাপক আর্থ-সামাজিক ও জনসখ্যার চাপের সম্মুখীন।

তিনি বলেন, কক্সবাজারে অবস্থানরত মিয়ানমার থেকে বাস্তুচ্যুত হয়ে আশ্রয় গ্রহণে বাধ্য হওয়া বিপুলসংখ্যক রোহিঙ্গার উপস্থিতি বাংলাদেশের ওপর ব্যাপক আর্থ-সামাজিক, পরিবেশগত এবং জনসংখ্যার ওপর চাপ সৃষ্টি করেছে।
আজ সন্ধ্যায় সুইডেনের নবনিযুক্ত রাষ্ট্রদূত শার্লট শ্যালেটার প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় সংসদ ভবনস্থ কার্যালয়ে শেখ হাসিনার সঙ্গে সৌজন্য স্বাক্ষাতে এলে তিনি এ কথা বলেন।

বৈঠকের পর প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ রোহিঙ্গা শরণার্থীদের প্রত্যাবাসনের বিষয়ে মিয়ানমারের সঙ্গে আলোচনা করেছে এবং এ বিষয়ে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের অস্থায়ী আশ্রয় প্রদানে সরকার একটি দ্বীপকে উন্নয়ন করছে।

শার্লট শ্যালেটার রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশকে তাঁর দেশের পূর্ণ সমর্থনের বিষয়ে পুনরায় আশ্বাস প্রদান করেন।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী রোহিঙ্গা ইস্যুতে সুইডেনের শক্তিশালী রাজনৈতিক এবং মানবিক ভূমিকার প্রশংসা করেন।

বৌদ্ধ অধ্যুষিত মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে সেনা অভিযানের পর সৃষ্ট সংকটে গত বছরের ২৫ আগস্ট থেকে বিপুলসংখ্যক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় গ্রহণে বাধ্য হয়।

দেশ পরিচালনার বিভিন্ন ক্ষেত্রে তাঁর সরকারের অর্জন তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ মূলত কৃষিভিত্তিক দেশ হলেও তাঁর সরকার এখানে বিভিন্ন ধরনের শিল্প কারখানা গড়ে তোলার উদ্যোগ নিয়েছে।
এ সময় শ্রমিকদের কল্যাণে সরকারের গৃহীত পদক্ষেপ প্রসংগে প্রধানমন্ত্রী শ্রমিকদের বেতন-ভাতা বৃদ্ধি, প্রশিক্ষণের উদ্যোগ গ্রহণ, তাদের সন্তানদের সুরক্ষায় ডে কেয়ার সেন্টার এবং ডরমিটরি গড়ে তোলার কথা উল্লেখ করেন।

সুইডেনের রাষ্ট্রদূত দু’দেশের মধ্যে বিদ্যমান উন্নয়ন কর্মকান্ড বৃদ্ধিতে তাঁর দেশের আগ্রহের কথা ব্যক্ত করেন।

তিনি সকলের জন্য ভালো কাজকে উৎসাহিত করা এবং অন্তর্ভুক্তিমূলক অর্থনৈতিক সমৃদ্ধির লক্ষ্যে গৃহীত ‘গ্লোবাল ডিল ইনিশিয়েটিভ’ সংক্রান্ত বিষয়ে সুইডেনের প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত পদক্ষেপের প্রতি বাংলাদেশের সমর্থনের প্রশংসা করেন।

প্রধানমন্ত্রীর মুখ্য সচিব নজিবুর রহমান এ সময় উপস্থিত ছিলেন।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

অনশন ভাঙলেন বেসরকারি প্রাথমিক শিক্ষকরা



জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে কর্মসূচির পঞ্চদশ দিনে সোমবার শিক্ষকদের কাছে যান মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. মহিউদ্দিন খান এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মো. আলমগীর।

বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াজোঁ কমিটির আহ্বায়ক আব্দুল খালেক বলেন, “শিক্ষকদের দাবি অনুযায়ী ৫ শতাংশ প্রবৃদ্ধি এবং বৈশাখী ভাতা দ্রুত সময়ের মধ্যে কার্যকরের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তারা।

“এছাড়া আমাদের জাতীয়করণের দাবি প্রধানমন্ত্রী আগামী বাজেটে দেখবেন বলে আশ্বাসের প্রেক্ষিতে আমরা আমাদের অনশন কর্মসূচি প্রত্যাহার করে নিয়েছি।”

নন-এমপিওদের দাবি পূরণে সরকার আশ্বাস দেওয়ার পর জাতীয়করণের দাবিতে গত ১০ জানুয়ারি প্রেস ক্লাবের সামনে কর্মসূচি শুরু করেন এমপিওভুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোর এই শিক্ষকরা। ১৫ জানুয়ারি থেকে তারা শুরু করেন ‘আমরণ অনশন’।দাবি পূরণে ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত সরকারকে সময়সীমা বেঁধে দিয়েছিলেন তারা।

ফোরামের যুগ্ম আহ্বায়ক রফিকুল ইসলাম বলেন, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ৮৫ শতাংশের বেশি তাদের আন্দোলনে একাত্ম।
ফোরামের আরেক নেতা রবিউল ইসলাম জানান, প্রেস ক্লাবের সামনে খোলা আকাশের নিচে অনশন করতে গিয়ে তাদের ১৬৫ জন শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েন। তাদের বিভিন্ন হাসপাতলে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এই শিক্ষক নেতারা বলেন, শিক্ষার মান উন্নয়ন এবং বৈষম্য দূর করতে জাতীয়করণের বিকল্প নেই। এর জন্য সরকারকে বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বেতন কাঠামো নির্ধারণে একটি সুষ্ঠু নীতিমালা প্রণয়ন করতে হবে।

বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আয় ও সঞ্চিত অর্থ সরকারি কোষাগারে জমা করা হলে ষষ্ঠ থেকে স্নাতক পর্যন্ত শিক্ষা জাতীয়করণে সরকারের কোষাগার থেকে অতিরিক্ত বরাদ্দের প্রয়োজন নেই বলে মনে করে ফোরামের নেতারা।

শিক্ষকদের ছয়টি সংগঠনের সমন্বয়ে গঠিত বেসরকারি শিক্ষা জাতীয়করণ লিয়াঁজো ফোরাম তথ্য অনুযায়ি, দেশে এমপিওভুক্ত বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে ১৯ হাজার ২৩৩টি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, ৪ হাজার ৭টি কলেজ, ৯ হাজার ৩৪১টি মাদ্রাসা ও ৫ হাজার ৮৯৭টি কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মোট পাঁচ লাখ ২২ হাজার ৬৭৭ জন শিক্ষক ও এক কোটি ৬২ লাখ ৬৩ হাজার ৭২৪ জন শিক্ষার্থী রয়েছেন।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

ব্যাংকিং খাতে জবাবদিহিতার জন্য পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে : অর্থমন্ত্রী



অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন, ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে অনিয়ম ও ত্রুটিমুক্তভাবে পরিচালনা এবং স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে সরকার বিভিন্ন কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে।

তিনি আজ সংসদে সরকারি দলের সদস্য মো. ইসরাফিল আলম উত্থাপিত সিদ্ধান্ত প্রস্তাবের জবাবে বলেন, ‘ব্যাংকিং ব্যবস্থায় নিয়মকানুন সঠিকভাবে প্রতিপালনের লক্ষ্যে ১৯৯১ সালে প্রণীত ব্যাংকিং আইন বর্তমান সরকার ২০১৩ সালে সংশোধন করেছে। আইনের সংশোধনীতে বিভিন্ন ক্ষেত্রের দায়িত্ব, কর্তব্য ও কর্মপরিধি স্পষ্ট করা হয়েছে।’
গত দুই দিন আগেও ব্যাংকিং আইনে আরো একটি সংশোধনী পাস করা হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

মন্ত্রী বলেন, ব্যাংকিং আইনে অভ্যন্তরীণ নিরীক্ষা ও তা প্রতিপালনের জন্য পরিচালনা পর্ষদকে দায়বদ্ধ করা হয়েছে। পরিচালনা পর্ষদের দায়িত্ব যথাযথভাবে পরিপালনের জন্যে পরিচালনা পর্ষদ সদস্যদের সমন্বয়ে অডিট ও নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা নিশ্চিত করা নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, ব্যাংকের জবাবদিহিতা বাড়াতে শেয়ার ধারণকারী পরিচালকদের পাশাপাশি স্বতন্ত্র পরিচালক নিয়োগের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখন পরিচালকের মোট সদস্য সংখ্যা ২০জন। এর মধ্যে ৩ জন স্বতন্ত্র পরিচালক থাকেন। আমানতকারী ও শেয়ার ধারকদের স্বার্থ রক্ষা ও স্বাধীন এবং নিরপেক্ষভাবে ব্যাংকের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য স্বতন্ত্র পরিচালকদের ভূমিকা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেন, আমানতকারী ও অন্যান্য স্টেকহোল্ডারদের কাছে ব্যাংকের জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ব্যাংকগুলোকে বার্ষিক ও ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে আর্থিক তথ্য রিপোর্টিং করার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

তিনি বলেন, জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ত্রৈমাসিক ভিত্তিতে ব্যাংকসমূহের প্রধান নির্বাহীদের সাথে বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নরের সভাপতিত্বে সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সভায় ব্যাংক সমূহের আর্থিক ব্যবস্থাপনাসহ বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হয়।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

বাজেটে এমপিও অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সরকার সিদ্ধান্ত নিবে: প্রধানমন্ত্রী



প্রধানমন্ত্রী এবং সংসদ নেতা শেখ হাসিনা বলেছেন, আগামী বাজেটে বেসরকারি বিদ্যালয়ের মাসিক বেতন আদেশ (এমপিও) অন্তর্ভুক্তির বিষয়ে সরকার সিদ্ধান্ত নিবে।

শেখ হাসিনা বলেন, আমরা একটি নীতির ভিত্তিতে এমপিওর অধীনে জাতীয়করণ এবং স্কুলগুলো নিয়ে আসছি। যখন আগামী বাজেট প্রণয়ন করা হবে, তখন এই নীতি বিবেচনা করে একটি তালিকা তৈরী করে এবং স্কুলগুলোর অবস্থা দেখে, আমরা সম্ভাব্য স্কুলের অন্তর্ভুক্তির সিদ্ধান্ত নিতে পারি।’
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ তাঁর জন্য নির্ধারিত প্রশ্নোত্তর পর্বে তরিকত ফেডারেশনের সদস্য নজিবুল বশর মাইজভান্ডারীর এক সম্পূরক প্রশ্নের জবাবে একথা বলেন।

সংসদ নেতা বলেন, ‘বাজেটের অর্থ জনসাধারণের অর্থ এবং এটি অসম্মান দেখিয়ে দূরে ফেলে দেয়ার জন্য নয়। আমরা জনগণের কল্যাণে এই টাকা ব্যয় করতে চাই।’

শেখ হাসিনা বলেন, ছাত্রদের সংখ্যা, স্কুল ও শিক্ষার্থীদের গুণগতমান এবং শিক্ষকরা যেভাবে শিক্ষা প্রদান করছে, এই সব দিক বিবেচনা করে একটি নীতি অনুসরণ করে এমপিও’র অধীনে সরকার স্কুলগুলোকে জাতীয়করণ করছে।

এ প্রসঙ্গে প্রধানমন্ত্রী একটি উদাহারণ দিয়ে বলেন, রংপুরের পীরগঞ্জে একটি স্কুলের জাতীয়করণের বিষয়ে তাঁর এক আত্মীয়ের একটি প্রস্তাব তিনি প্রত্যাখ্যান করেছেন।

শেখ হাসিনা বলেন, তাঁর আত্মীয় যে স্কুলটি জাতীয়করণের প্রস্তাব দিয়েছিলেন তার ছাত্র সংখ্যা ১৫০ জন।
তিনি বলেন, আমি আমার আত্মীয়কে বলেছিলাম কিভাবে জাতীয়করণ করতে পারি, যার ছাত্র সংখ্যা ১৫০ জন। আমি আমার আত্মীয় এবং সেই সংসদীয় আসন থেকে এমপি নির্বাচিত হলেও তা করতে পারি না। যৌক্তিকতা থাকতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আত্মীয় প্রস্তাব নিয়ে আসবে আর আমি করে দেবো, এত বড় অন্যায় আমি করবো না।’

শেখ হাসিনা বলেন, বিভিন্ন জন বিভিন্ন দাবি নিয়ে আসে এবং সরকার তাদের আশ্বস্ত করছে। কিন্তু কাজটা করতে গেলে বাজেটে কত টাকা আছে তা দেখতে হবে, কোন স্কুল এমপিও পাওয়ার যোগ্য এবং ওইসব স্কুলে ছাত্র-ছাত্রী কত রয়েছে তা জানতে হবে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, তাঁর সরকার শুধু এমপিও’র অধীনেই স্কুলগুলোতে আনেনি উপরন্তু শিক্ষার বৈচিত্রায়ন এবং গুণগত মানোন্নয়নের জন্যও উদ্যোগ গ্রহণ করেছে।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০১০ শিক্ষাবর্ষ থেকে ২০১৮ শিক্ষাবর্ষ পর্যন্ত তাঁর সরকার শিক্ষার্থীদের মাঝে ২৫৯ কোটি ৭৯ লাখ ২২ হাজার ৯০২ কপি পাঠ্যপুস্তক বিনামূল্যে বিতরণ করেছে।

এই সময়ে শিক্ষকদের জন্য ১ কোটি ৬ লাখ ৬৮ হাজার ৩৮৮টি শিক্ষক নির্দেশিকা সরবরাহ করেছে। এতে ব্যয় হয়েছে ৩ হাজার ৯৮৪ কোটি ৯০ লাখ ৯০ হাজার ৪৭৮ টাকা।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

ডিএনসিসি নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় আওয়ামী লীগও হতাশ: কাদের



ঢাকা সিটি নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় আওয়ামী লীগই বেশি হতাশ বলে মন্তব্য করেছেন দলটির সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। কুমিল্লায় মহাসড়ক পরিদর্শনকালে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পরিচ্ছন্ন ইমেজের কারণে নির্বাচনে বিজয়ের শতভাগ সম্ভবনা ছিলো। নির্বাচন স্থগিত হওয়ায় আমরা হতাশ।

স্থগিতের আদেশ নিয়ে বিএনপি নেতারা মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, দলের হাইকমান্ডকে খুশি করতে তারা মিথ্যাচারের প্রতিযোগিতায় নেমেছেন।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

শ্রীলংকা ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারল



ত্রিদেশীয় সিরিজে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে শ্রীলংকাকে ১৬৩ রানের বড় ব্যবধানে হারিয়েছে স্বাগতিক বাংলাদেশ। জয়ের জন্য ৩২১ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ৩২ ওভার ২ বলে ১৫৭ রানেই গুটিয়ে যায় লঙ্কানরা।

দলের পক্ষে থিসারা পেরেরা সর্বোচ্চ ২৯ রান করেন। এছাড়া দিনেশ চান্ডিমাল ২৮ ও উপুল থারাঙ্গা ২৫ রান করেন।

বাংলাদেশের পক্ষে সাকিব আল হাসান তিনটি, মাশরাফি বিন মুর্তজা ও রুবেল হোসেন ২টি করে এবং নাসির হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান একটি করে উইকেট নেন।

৩২১ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে শ্রীলংকার শুরুটা ভালো হয়নি। দলীয় দুই রানেই তাদের প্রথম উইকেটের পতন হয়।

সিরিজে নিজেদের প্রথম ম্যাচের মতো এদিনও টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি স্পিন দিয়েই শুরু করেন। তবে আগের দিন শুরুতে সাকিবের হাতে বল তুলে দিলেও ম্যাশ এদিন আস্থা রাখেন নাসিরের ওপর। সাকিবের মতো প্রথম ওভারে না পারলেও প্রতিদান ঠিকই দিয়েছেন নাসির। নিজের দ্বিতীয় ওভারের প্রথম বলেই শ্রীলংকার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান কুশল পেরেরাকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরত পাঠান। কুশল করেন ১ রান।

এরপর ব্যাট করতে নামা কুশল মেন্ডিসকে সঙ্গে নিয়ে শ্রীলংকাকে এগিয়ে নিতে থাকেন আরেক উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান উপুল থারাঙ্গা। ইনিংসের দশম ওভারে বোলিংয়ে এসে থারাঙ্গাকে সাজঘরে ফেরত পাঠিয়ে ৪১ রানের এই জুটি ভাঙেন অধিনায়ক মাশরাফি। মিডঅফে মাহমুদুল্লাহর হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে থারাঙ্গা করেন ২৫ রান।

থারাঙ্গার বিদায়ের পর ব্যাট করতে নামেন উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান নিরোশান ডিকভেলা। তাকে সঙ্গে নিয়ে দলীয় সংগ্রহে আরও ১৯ রান যোগ করেন কুশল মেন্ডিস। চতুর্দশ ওভারে বোলিংয়ে এসে আবারও জুটি ভাঙেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি। এবার তার শিকার কুশল মেন্ডিস। মাশরাফির স্লোয়ার ডেলিভারিতে ইনসাইড আউট খেলতে গিযে ব্যাটে-বলে ঠিকমতো করতে পারেননি মেন্ডিস, মিডঅফে ধরা পড়েন রুবেল হোসেনের হাতে। তিনি করেন ১৯ রান।

কুশল মেন্ডিসের বিদায়ের পর ব্যাটিংয়ে নামেন দিনেশ চান্ডিমাল। ডিকভেলাকে সঙ্গে নিয়ে বিপর্যয় সামলে দলকে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালান তিনি। তবে সেই চেষ্টায় বাধ সাধেন টাইগার পেসার মোস্তাফিজ। ১৯তম ওভারে দলীয় ৮৫ রানে ডিকভেলাকে বোল্ড করে সাজঘরে ফেরত পাঠিয়ে জুটি ভাঙেন ‘ফিজ’। ডিকভেলা করেন ১৬ রান।

ডিকভেলার বিদায়ের পর ব্যাট করতে নামেন আসেলা গুনারত্নে। তাকে নিয়ে দলীয় সংগ্রহে আরও ২১ রান যোগ করেন দিনেশ চান্ডিমাল। তবে দলীয় ১০৬ রানে রান আউটে কাটা পড়েন তিনি। সাকিবের দারুণ থ্রোতে বিদায় নেওয়ার আগে তিনি করেন ২৮ রান।

দারুণ থ্রোতে চান্ডিমালকে বিদায় করার সাকিব পরের ওভারে বোলিংয়ে এসে তুলে নেন জোড়া উইকেট। তার জোড়া আঘাতে দিশেহারা হয়ে পড়ে শ্রীলংকার ব্যাটিং লাইনআপ। ২৬তম ওভারে দলীয় ১১৭ রানে গুনারত্নেকে (১৬) প্রথমে ব্যাকওয়ার্ড পয়েন্টে সাইফুদ্দিনের ক্যাচ বানিয়ে সাজঘরে ফেরত পাঠান সাকিব। পরেই বলেই উড়িয়ে মারতে গিয়ে উইকেটরক্ষক মুশফিকুর রহিমের হাতে ধরার পড়েন ওয়ানিডু হাসারাঙ্গা (০)। এর মধ্য দিয়ে শ্রীলংকার ষষ্ঠ উইকেটের পতন হয়।

দলের ষষ্ঠ উইকেটের পতনের পর যেন মারমুখী হয়ে ওঠেন থিসারা পেরেরা। সাকিবের করা ৩০তম ওভারের প্রথম চার বলে দুটি চার ও দুটি ছয়ে ২০ রান তুলে নেন তিনি। তবে পঞ্চম বলে আর পারেননি, সীমানায় মাহমুদুল্লাহর হাতে ধরা পড়ে বিদায় নেন। তবে সাজঘরে ফেরার আগে ২৯ রান করেন তিনি। এর মধ্য দিয়ে শ্রীলংকার অষ্টম উইকেটের পতন হয়।

পরের ওভারেই সুরঙ্গা লাকমলকে(১) বোল্ড করে শ্রীলংকার নবম উইকেটের পতন ঘটান পেসার রুবেল হোসেন। মাঝে এক ওভার বাদ দিয়ে ৩৩তম ওভারে রুবেল ফের বোলিংয়ে এসে আকিলা ধনঞ্জয়াকেও তুলে নিলে ১৫৭ রানেই গুটিয়ে যায় শ্রীলংকা। সাকিবের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরার আগে তিনি করেন ১৪ রান।

শুক্রবার বেলা ১২টায় ঢাকার মিরপুরের শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ম্যাচটি শুরু হয়। টস জিতে এদিন আগে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা।

ব্যাট করতে নেমে তামিম, সাকিব ও মুশফিকের অর্ধশতকে ভর করে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩২০ রানের সংগ্রহ দাঁড় করায় টাইগাররা।

বাংলাদেশের পক্ষে তামিম ইকবাল সর্বোচ্চ ৮৪ রান করেন। এছাড়া সাকিব আল হাসান ৬৭ ও মুশফিকুর রহিম ৬২ রান করেন।

শ্রীলংকার পক্ষে থিসারা পেরেরা ৩টি, নুয়ান প্রদীপ ২টি এবং আকিলা ধনঞ্জয়া ও আসেলা গুনারত্নে একটি করে উইকেট নেন।

টুর্নামেন্টের নিজেদের প্রথম ম্যাচে জিম্বাবুয়েকে ৮ উইকেটে হারায় বাংলাদেশ। অন্যদিকে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকা জিম্বাবুয়ের কাছে ১২ রানে হেরে যায়।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

টাইগারদের সহজ জয়



বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে টাইগাররা। ১৭১ রানের জয়ের লক্ষ নিয়ে ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ২৮.৩ ওভারেই ৮ উইকেটের বিশাল জয় তুলে নেয় মাশরাফি বাহিনী। তামিম ইকবালের দুর্দান্ত ব্যাটিং বাংলাদেশকে সহজেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে দেয়।

সোমবার শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়াম ম্যাচে টস জিতে জিম্বাবুয়েকে ব্যাটে পাঠান স্বাগতিক অধিনায়ক মাশরাফি। রুবেল, মোস্তাফিজ ও সাকিবদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে ৪৯ ওভারে সব উইকেট হারিয়ে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ করে ১৭০ রান।

জিম্বাবুয়ের ইনিংসের প্রথম ওভারেই দুই উইকেট তুলে নেন সাকিব আল হাসান। সলোমন মিরে ও ক্রেইগ এরভিনকে ফেরান তিনি। দলীয় ৩০ রানের মাথায় দলের অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মাসাকাদজাকে ফিরে জিম্বাবুয়েকে চাপে ফেলেন টাইগার অধিনায়ক মাশরাফি। সেই চাপে ধুঁকে ধুঁকে পথ চলে জিম্বাবুয়ে। দলীয় ৫১ ও ব্যক্তিগত ২৪ রানে মুস্তাফিজুর রহমানের শিকারে পরিণত হন ব্রেন্ডন টেইলর। সিকান্দার রাজা একপ্রান্ত আগলে ডুবন্ত তরীর ঝাণ্ডা ধরে রাখেন। রাজা দলীয় ১৩১ রানে সাকিবের থ্রোতে রান আউটের শিকার হলে চাপে পড়ে জিম্বাবুয়ে। এরপর ১৬১ থেকে ১৭০ রানের মধ্যেই শেষ ৪ উইকেট হারিয়ে ফেলে জিম্বাবুয়ে।

টাইগারদের হয়ে সাকিব ৩টি, মুস্তাফিজ ২টি ও রুবেল ২ টি উইকেট লাভ করেছেন। জিম্বাবুয়ের পক্ষে সিকান্দার রাজা ৫২ রান করেন।

বাংলাদেশের ইনিংসের তৃতীয় ওভারের শেষ বলে টাইগার উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়কে সাজঘরে ফিরিয়ে দেন সিকান্দার রাজা। এনামুলের সংগ্রহ ১৪ বলে ১৯ রান। এনামুলের বিদায়ের পর ক্রিজে আসেন সাকিব। সিকান্দার রাজার বলে এলবিডব্লিউ হওয়ার আগে সাকিব ৪৬ বলে ৫ বাউন্ডারিতে ৩৭ রান সংগ্রহ করেন।

তামিম ইকবাল ৮৪ রানের দুর্দান্ত একটি ইনিংস খেলে অপরাজিত ছিলেন। মুশফিকও ১৪ রান করে তামিমকে সঙ্গ দিয়ে যান।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…

এক-এগারো আর আসতে দেয়া হবে না: কাদের



আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশে আর এক-এগারো আসবে না এবং আসতে দেয়া হবে না।

আওয়ামী লীগের ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে সম্পাদকমণ্ডলীর সভাশেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন। কাদের বলেন, বিএনপি এক-এগারো থেকে শিক্ষা নেয়নি। তারা এখনও ঘোলাপানিতে মাছ শিকার করতে চায়। অরাজকতা করে ক্ষমতায় আসতে চায়। নৌকার গণজাগরণ দেখে তারা এখন হতাশ।

সরকারের সফলতা আছে, ব্যর্থতাও আছে। তবে আমরা ভুল থেকে শিক্ষা নিই বলে জানান সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।


গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

গুগল সার্চে উধাও ‘view image’

খ্যাত ছবি পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থা ‘গেটি ইমেজস’-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বাঁধল ‘গুগল’। আর এই চুক্তির পরেই…


জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সজাগ থাকতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

আনসার ও গ্রাম প্রতিরক্ষা বাহিনীর উদ্দেশ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, আসন্ন জাতীয় নির্বাচন সুষ্ঠু ও…


২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

২১ ফেব্রুয়ারি ৪ স্তরের নিরাপত্তা শহীদ মিনার এলাকায় : ডিএমপি

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে আগামী ২১ ফেব্রুয়ারি কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার এলাকায় চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে…


রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

রাতারাতি আকাশছোঁয়া দর প্রিয়ার!

প্রিয়া প্রকাশ। গত কয়েকদিন ধরে এই একটা নাম যেন ইন্টারনেটের সার্চ ইঞ্জিনে ঝড় তুলেছে। তাঁর…


প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী দেশে ফিরেছেন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতালি ও ভ্যাটিকান সিটিতে চারদিনের সরকারি সফর শেষে আজ সন্ধ্যায় দেশে ফিরেছেন।…


ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

ডিসেম্বরে অবসর নেব: অর্থমন্ত্রী

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত বলেছেন তিনি আগামী ডিসেম্বরে অবসরে যাবেন। আজ শনিবার এ কথা…


রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

রায়ের কপি নিয়ে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে সরকার: ফখরুল

খালেদা জিয়ার মামলার রায়ের সত্যায়িত কপি নিয়ে সরকার পরিকল্পিতভাবে ধুম্রজাল সৃষ্টি করছে অভিযোগ মির্জা ফখরুলের।…


দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

দেশকে এগিয়ে নিতে আওয়ামী লীগকে ক্ষমতায় রাখতে হবে: সেতুমন্ত্রী

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দেশকে এগিয়ে নিতে…


প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

প্রশ্নপত্র ফাঁস তদন্তে দুই কমিটি গঠন

২০১৮ সালের এসএসসি পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের তদন্ত করতে বিচার বিভাগীয় ও প্রশাসনিক দুটি কমিটি গঠন…


২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

২এপ্রিল এইচএসসি শুরু

আগামী ২ এপ্রিল থেকে সারাদেশে ২০১৮ সালের এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা একযোগে শুরু হবে। তত্ত্বীয়…


গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

গৃহকর্মী ফাতেমাকে সঙ্গে পেলেন খালেদা জিয়া

দুর্নীতির দায়ে কারাবন্দি বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া তার মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট হিসেবে পেয়েছেন গৃহকর্মী ফাতেমাকে।আদালতের আদেশক্রমে…


‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

‘দুর্নীতিবাজদের অবশ্যই বিচার হবে’

সরকার তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত কোন মামলা প্রত্যাহার করেনি উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের শান্তি ও…