ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের পর এবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইট ‘ক্রিকেট ডটকম ডটএইউ’-এর বর্ষসেরা টেস্ট একাদশেও জায়গা পেয়েছেন সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা টি-টোয়েন্টি একাদশেও আছেন সাকিব। তাদের নির্বাচিত বর্ষসেরা ওয়ানডে একাদশে অবশ্য বাংলাদেশের কেউ নেই।

অস্ট্রেলিয়া ও ভারত থেকে সর্বোচ্চ তিনজন করে টেস্ট একাদশে জায়গা পেয়েছেন। দক্ষিণ আফ্রিকা ও বাংলাদেশ থেকে আছেন দুইজন করে। অপর একজন ইংল্যান্ডের।

ডিন এলগার (দ. আফ্রিকা)
২০১৭ সালটা দুর্দান্ত কেটেছে এলগারের। এ বছর দক্ষিণ আফ্রিকার খেলা চারটি টেস্ট সিরিজেই সেঞ্চুরি করেছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। সেপ্টেম্বরে বাংলাদেশের বিপক্ষে ১৯৯ রানের ইনিংসটা সর্বোচ্চ। জুলাইয়ে ওভালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে চতুর্থ ইনিংসে ১৩৬ রানের ইনিংসটাও ছিল দুর্দান্ত। সব মিলিয়ে এ বছর ৫টি সেঞ্চুরি করেছেন এলগার। ২১ ইনিংসে ৫৩.৭১ গড়ে করেছেন ১১২৮ রান।

ডেভিড ওয়ার্নার (অস্ট্রেলিয়া)
এ বছরই উপমহাদেশে প্রথম টেস্ট সেঞ্চুরির স্বাদ পেয়েছেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। বাংলাদেশের বিপক্ষে করেন ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরি করেছেন মেলবোর্নে অ্যাশেজ টেস্টেও। ২১ ইনিংসে ৪৯.৮৫ গড়ে এ বছর ওয়ার্নারের রান ৯৯৭। সেঞ্চুরি ও ফিফটি সমান ৪টি করে। সর্বোচ্চ ইনিংস ১২৩।

চেতেশ্বর পূজারা (ভারত)
মাত্র নবম ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টের পাঁচ দিনই ব্যাট হাতে নামার বিরল কীর্তিটা এ বছরই গড়েছেন পূজারা। এ ছাড়া আগস্টে রাঁচিতে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরি করেন ৫২৫ বলে। এ বছর ১৬ ইনিংসে ৭৫.৬৪ গড়ে ১০৫৯ রান করেছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। পাঁচটি সেঞ্চুরির পাশে ফিফটি একটি। সর্বোচ্চ ইনিংস ২৪৩।

স্টিভ স্মিথ (অস্ট্রেলিয়া)
২০১৭ সালটা দুর্দান্ত কেটেছে অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়কের। ম্যাথু হেইডেনের পর টেস্ট ইতিহাসের মাত্র দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে টানা চার পঞ্জিকাবর্ষে হাজার রানের কীর্তি গড়েছেন। অ্যাশেজে প্রথম চার টেস্টে করেছেন তিন সেঞ্চুরি। যার একটি ডাবল। অ্যাশেজ পুনরুদ্ধার করেছে তার দল অস্ট্রেলিয়া। এ বছর ২০ ইনিংসে ১৩০৫ রান করেছেন স্মিথ। গড় ৭৬.৭৬। ৬টি সেঞ্চুরির সঙ্গে আছে ৩টি ফিফটি। সর্বোচ্চ ইনিংস ২৩৯।

বিরাট কোহলি (ভারত, অধিনায়ক)
এ বছর কোহলি নিজের প্রথম ইনিংসেই ডাবল সেঞ্চুরি করেছিলেন বাংলাদেশের বিপক্ষে। কিন্তু এরপর অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে রানের জন্য সংগ্রাম করতে হয়েছে ভারতীয় অধিনায়ককে, পাঁচ ইনিংসে করেন মাত্র ৪৬ রান। সেই কোহলি বছরের শেষ দিকে ঘরের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে সিরিজে করলেন তিনটি সেঞ্চুরি, যার দুটিই ডাবল! তার আগে শ্রীলঙ্কা সফরে গিয়েও করেছিলেন সেঞ্চুরি। এ বছর ১৮ ইনিংসে ৬৭.০৫ গড়ে কোহলির রান ১১৪০। ৪টি সেঞ্চুরির সঙ্গে ফিফটি ৫টি। সর্বোচ্চ ২০২। বর্ষসেরা দলের অধিনায়কও তিনিই।

সাকিব আল হাসান (বাংলাদেশ)
বছরের শুরুতে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সাকিব খেলেছিলেন ২১৭ রানের দুর্দান্ত ইনিংস। যেটি টেস্টে বাংলাদেশের
ব্যাটসম্যানের সর্বোচ্চ স্কোর। আগস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রথম টেস্ট জয়ের ম্যাচে নিয়েছিলেন ১০ উইকেট, ব্যাট হাতে খেলেছিলেন ৮৪ রানের ইনিংস। সেঞ্চুরি করেছেন শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টেস্টেও। এ বছর ১৪ ইনিংসে ৪৭.৫০ গড়ে সাকিবের রান ৬৬৫। ২টি সেঞ্চুরি সঙ্গে আছে ৩টি ফিফটি। হাত ঘুরিয়ে নিয়েছেন ২৯ উইকেট।

মুশফিকুর রহিম (বাংলাদেশ)
এ বছর ৫৪.৭১ গড়ে ৭৬৬ রান করেছেন সদ্যই বাংলাদেশের টেস্ট অধিনায়কত্ব হারানো মুশফিক। কুইন্টন ডি কক, নিরোশান ডিকভেলাদের পেছনে ফেলে বর্ষসেরা টেস্ট দলের উইকেটরক্ষকও তিনিই। এ বছর মুশফিক সেঞ্চুরি করেছেন দুটি- ওয়েলিংটনে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ১৫৯, হায়দরাবাদে ভারতের সঙ্গে একমাত্র টেস্টে ১২৭। তার নেতৃত্বেই শ্রীলঙ্কা ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্ট জেতে বাংলাদেশ।

রবীন্দ্র জাদেজা (ভারত)
স্বদেশী রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে পেছনে ফেলে একদশে জায়গা করে নিয়েছেন এই অলরাউন্ডার। এ বছর ব্যাট হাতে ১৪ ইনিংসে ৪১ গড়ে তিনি করেছেন ৩২৮ রান। হাত ঘুরিয়ে নিয়েছেন ৫৪ উইকেট। ইনিংসে পাঁচ উইকেট পেয়েছেন তিনবার।

কাগিসো রাবাদা (দ. আফ্রিকা)
এ বছর ১১ ম্যাচে ৫৭ উইকেট নিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকার এই ফাস্ট বোলার। পাঁচ উইকেট পেয়েছেন তিনবার। ম্যাচে ১০ উইকেট দুবার। একাদশে দুই ফাস্ট বোলারের একজন রাবাদা।

নাথান লায়ন (অস্ট্রেলিয়া)
এ বছর ১১ টেস্টে ৬৩ উইকেট নিয়েছেন অস্ট্রেলিয়ান এই স্পিনার। বাংলাদেশের বিপক্ষে ২২ উইকেট নিয়ে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজে সবচেয়ে বেশি উইকেটের ১৩০ বছরের অস্ট্রেলিয়ান রেকর্ড ভাঙেন লায়ন।

জেমস অ্যান্ডারসন (ইংল্যান্ড)
অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে এ বছরই প্রথমবার পাঁচ উইকেট পেয়েছেন অ্যান্ডারসন। ১৬ উইকেট নিয়ে এখন পর্যন্ত এবারের অ্যাশেজে বল হাতে ইংল্যান্ডের সেরা পারফরমার ডানহাতি এই পেসার। এ বছর ১১ ম্যাচে ৫৫ উইকেট তাকে জায়গা করে দিয়েছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা টেস্ট একাদশে।


টাইগারদের সহজ জয়

বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কা ও জিম্বাবুয়ের ত্রিদেশীয় সিরিজের উদ্বোধনী ম্যাচে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সহজ জয় পেয়েছে টাইগাররা। ১৭১…


এক-এগারো আর আসতে দেয়া হবে না: কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বাংলাদেশে আর এক-এগারো আসবে না…


স্বাভাবিক রয়েছে পিঁয়াজের দাম: বানিজ্যমন্ত্রী

বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেছেন. স্থানীয় বাজারে পিঁয়াজের মূল্য ক্রমশঃ হ্রাস পেয়ে এখন স্বাভাবিক পর্যায়ে পৌঁছেছে।…


২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধবাংলাদেশ গড়ে তুলবো

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশা ব্যক্ত করে বলেছেন, ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়ে স্বাধীনতার…


হাসিনা দেশকে উন্নয়নের অনন্য এক মাত্রায় নিয়ে গেছেন: আইনমন্ত্রী

আইনমন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, বিএনপি শাক দিয়ে মাছ ঢাকার চেষ্টা করছে। বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা…


ভারতে প্রধান বিচারপতিকে চার বিচারকের চ্যালেঞ্জ

ভারতের সুপ্রিম কোর্টের চার জন বিচারক প্রকাশ্যে সংবাদ সম্মেলন করে প্রধান বিচারপতির কর্তৃত্বকে চ্যালেঞ্জ করে…


নির্বাচনে নিবন্ধিত সব দলকে চান প্রধানমন্ত্রী

নির্বাচনে নিবন্ধিত সব দলকে চান প্রধানমন্ত্রী

আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে নিবন্ধিত সব রাজনৈতিক দলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ…


আখেরি মোনাজাতে শান্তি কামনা

আখেরি মোনাজাতে শান্তি কামনা

ঈমানি জিন্দিগি, দেশ ও জাতির কল্যাণ, বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি, ঐক্য, সমৃদ্ধি কামনা করে আখেরি…


ফোরজি নিলামে বাধা নেই

ফোরজি নিলামে বাধা নেই

 ফোরজি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলামের জন্য আবেদন আহ্বান করে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি)…


১৫ জানুয়ারি বাংলাদেশে আসছেন প্রণব মুখার্জি

ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি বর্ষীয়ান রাজনীতিক প্রণব মুখার্জি ১৫ জানুয়ারি সোমবার বাংলাদেশে আসছেন। ভারতের একমাত্র বাঙালি…


মাওলানা সাদকে ঘিরে তাবলীগের দ্বন্দ্ব প্রকাশ্যে

ভারতীয় উপমহাদেশের সুন্নি মুসলমানদের বৃহত্তম সংগঠন তাবলীগ জামাতের মধ্যে ক্ষমতার দ্বন্দ্ব আজ আবারও সামনে চলে…


২০৪১ সালে উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ে তুলবো

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আশা ব্যক্ত করে বলেছেন, ২০২১ সালে মধ্যম আয়ের দেশে উন্নীত হয়ে স্বাধীনতার…

পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যতো রেকর্ড



২২ দিনের পরিক্রমা শেষে রোববার পর্দা নেমেছে পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। বাংলাদেশে ১৬ মার্চ থেকে ৬ এপ্রিল পর্যন্ত অনুষ্ঠিত এই বিশ্বকাপে বেশ কিছু রেকর্ড তৈরি হয়েছে। যাতে ভারত, পাকিস্তান, ইংল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের পর নতুন চ্যাম্পিয়ন হিসেবে শ্রীলঙ্কাকে পেয়েছে ক্রিকেটের সংক্ষিপ্ততম ফরম্যাটটি। আসুন সদ্য শেষ হওয়া বিশ্বকাপটির কিছু রেকর্ড এক নজরে দেখে নেই-

দলীয় রেকর্ড:
• সর্বোচ্চ দলীয় সংগ্রহ- দক্ষিণ আফ্রিকা (১৯৬/৫, প্রতিপক্ষ ইংল্যান্ড)।
• এক ম্যাচে সর্বোচ্চ রান- দক্ষিণ আফ্রিকা-ইংল্যান্ড ম্যাচে (৩৮৯ রান)।
• এক ম্যাচে সর্বনিন্ম রান- নেদারল্যান্ডস-শ্রীলঙ্কা (৭৯ রান)।
• সবচেয়ে বড় ব্যবধানে জয়ী- বাংলাদেশ, নয় উইকেট ও ৪৮ বল বাকি থাকতে (প্রতিপক্ষ আফগানিস্তান), ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ৮৪ রানের ব্যবধানে (প্রতিপক্ষ পাকিস্তান)।
• এক ইনিংসে সর্বোচ্চ অতিরিক্ত- ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ১৯ রান (প্রতিপক্ষ বাংলাদেশ)।

ব্যাটিং রেকর্ড:
• সর্বোচ্চ রান- বিরাট কোহলি, ভারত। ছয় ইনিংসে ১০৬.৩৩ গড়ে ৩১৯ রান সংগ্রহ করেন। সর্বোচ্চ সংগ্রহ ৭৭ রান। হাফ সেঞ্চুরি ৪টি।
• এক ইনিংসে সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত সংগ্রহ- অ্যালেক্স হেলস (ইংল্যান্ড)। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ৬৪ বলে অপরাজিত ১১৬ রান করেন ইংলিশ এই ওপেনার।
• সর্বোচ্চ ব্যক্তিগত ব্যাটিং গড়- বিরাট কোহলি (ভারত)। গেল টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ১০৬.৩৩ গড়ে ৩১৯ রান করেন দিল্লির এই ব্যাটসম্যান।
• সর্বোচ্চ স্ট্রাইক রেট- সুনীল নারাইনের। ক্যারিবিয়ান এই তারকা এক ইনিংসে ব্যাট করে অপরাজিত সাত রান করেন। স্ট্রাইক রেট ৩৫০। তার ঠিক পরের স্থানেও আরেক ক্যারিবিয়। তিনি ড্যারেন সামি। উইন্ডিজ অধিনায়কের স্ট্রাইক রেট ২২৪.৪৪।
• সবচেয়ে বেশি ফিফটি- ভারতের বিরাট কোহলির। চারটি হাফ সেঞ্চুরি করেন তিনি।
• সবচেয়ে বেশি ডাক- বাংলাদেশের জিয়াউর রহমান ও হংকংয়ের ইরফান আহমেদের। দুই বার করে।
• গোটা টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি ছয় নেদারল্যান্ডের স্টিফেন মাইবার্গের, ১৩টি। ডাচ তারকার পরের আসনটি অসি হার্টহিটার গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের। তার উইলো থেকে ১২টি ছয় এসেছে।

বোলিং রেকর্ড:
• গোটা টুর্নামেন্টে সবচেয়ে বেশি ১২টি করে উইকেট দক্ষিণ আফ্রিকার ইমরান তাহির ও নেদারল্যান্ডসের আহসান মালিকের।
• এক ইনিংসে সবচেয়ে ভালো বোলিং ফিগার- শ্রীলঙ্কার রঙ্গনা হেরাথের। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ৩.৩ ওভার বোলিং করে মাত্র ৩ রানের বিনিময়ে পাঁচটি উইকেট নেন তিনি।
• সবচেয়ে মিতব্যয়ী ইকোনমি রেট- আফগানিস্তানের মিরওয়াইস আশরাফের। গোটা টুর্নামেন্টে চার ওভার বল করে ১৪ রান দেন তিনি। ইকোনমি রেট ৩.৫০।

অন্যান্য:
• সবচেয়ে বেশি ডিসমিসাল- দক্ষিণ আফ্রিকান উইকেটকিপার কুইন্টন ডি ককের। পাঁচ ম্যাচে আটটি ডিসমিসাল তার দখলে।
• সবচেয়ে বেশি ক্যাচ- ওয়েস্ট ইন্ডিজের ডোয়াইন ব্রাভোর। পাঁচ ম্যাচে সাতটি ক্যাচ নিয়েছেন তিনি।
• সবচেয়ে বড় পার্টনারশিপ ইংল্যান্ডের অ্যালেক্স হেলস ও এউইন মর্গানের। শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে তৃতীয় উইকেট জুটিতে ১৫২ রান করেন তারা।

পাতাটি ৩০৫০ বার প্রদর্শিত হয়েছে।


ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের পর এবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইট ‘ক্রিকেট ডটকম ডটএইউ’-এর বর্ষসেরা টেস্ট একাদশেও…


পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যতো রেকর্ড

২২ দিনের পরিক্রমা শেষে রোববার পর্দা নেমেছে পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। বাংলাদেশে ১৬ মার্চ থেকে ৬…


ক্রিকেটকে পুরুষদের জন্য অনুপযুক্ত ভাবতেন হিটলার

ক্রিকেটের প্রতি অ্যাডলফ হিটলারের আগ্রহ সম্পর্কিত চমকপ্রদ তথ্য খুব কম মানুষই জানে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়…


ফেসবুকে ‘ভেরিফাইড’ সাকিব আল হাসান

অবশেষে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ফেসবুক ফেজকে ভেরিফাইড করেছে সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম…

ক্রিকেটকে পুরুষদের জন্য অনুপযুক্ত ভাবতেন হিটলার



ক্রিকেটের প্রতি অ্যাডলফ হিটলারের আগ্রহ সম্পর্কিত চমকপ্রদ তথ্য খুব কম মানুষই জানে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময় এক ব্রিটিশ আর্মি অফিসার জার্মানির এক কারাগারে কর্মরত অবস্থায় হিটলারের ক্রিকেটের প্রতি আকর্ষণ নিজ চোখে দেখেন। এমনকি ক্রিকেট খেলার নিয়মকানুন সম্পর্কে হিটলারের সাথে তার আলাপও হয়েছিল। তার কিছুদিন পরই হিটলার ঘোষণা করেন যে তিনি নিজ উদ্যোগে একটি জার্মান ক্রিকেট টিম তৈরি করেছেন ব্রিটিশদের বিপরীতে খেলার জন্য। তবে পরে সেই খেলার ফলাফল জানা যায়নি।

এই ছিমছাম খেলাটিকে হিটলার পরে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেন জার্মানিতে। হিটলারের মতে, ক্রিকেট পুরুষদের জন্য একদমই অনুপযুক্ত খেলা। কারণ হলো, ক্রিকেটে পা রক্ষা করার জন্য যে রক্ষাকবচ প্যাড ব্যবহার করা হয় হিটলারের চোখে তা ছিল একদমই অশোভন। হিটলারের তৈরি নাৎসি বাহিনী কিন্তু সব ধরনের খেলায় পারদর্শী ছিল। তারা বেশিরভাগ অবসর সময় বল একে অন্যর দিকে ছুঁড়ে ধরার খেলা খেলত। এমনকি দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধ শুরু হওয়ার আগ মুহূর্তে হিটলারের কয়েকজন ঘনিষ্ঠ মিত্র ব্রিটিশ ক্রিকেটারদের জার্মানির বার্লিনে নিয়ে এসেছিলেন। কিন্তু তাদের আসার মূল কারণটি জানা যায়নি।

১৯৩৭ সালের আগষ্টের দিকে প্রিন্স বাওডুইন জাহাজে করে ডোবার থেকে ওসটেন্ড এসে ক্রিকেটের ট্রেনিং নিয়ে� জার্মানির বার্লিনে গিয়েছিলেন। যেখানে ওর্চেস্টশায়ারের

ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হয়েছিল ফুটবল খেলার মাঠে।�
নাৎসি বাহিনী যখনই ওর্চেস্টারশায়ারের খেলোয়ারদের নাত্সী স্যালুট দিতো, খেলোয়াররাও হাত উঁচু স্যালুটের প্রত্যুত্তর দিতো।� পরবর্তীতে ওর্চেস্টশায়ার টিমকে ক্রিকেট খেলার উদ্দেশ্যে নেদারল্যান্ড, ডেনমার্ক ও পর্তুগালে যায় এবং ক্রিকেট খেলায় অংশগ্রহন করে অনেক পুরস্কারও জিতে আনে।

পাতাটি ৩৩৩০ বার প্রদর্শিত হয়েছে।


ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের পর এবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইট ‘ক্রিকেট ডটকম ডটএইউ’-এর বর্ষসেরা টেস্ট একাদশেও…


পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যতো রেকর্ড

২২ দিনের পরিক্রমা শেষে রোববার পর্দা নেমেছে পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। বাংলাদেশে ১৬ মার্চ থেকে ৬…


ক্রিকেটকে পুরুষদের জন্য অনুপযুক্ত ভাবতেন হিটলার

ক্রিকেটের প্রতি অ্যাডলফ হিটলারের আগ্রহ সম্পর্কিত চমকপ্রদ তথ্য খুব কম মানুষই জানে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়…


ফেসবুকে ‘ভেরিফাইড’ সাকিব আল হাসান

অবশেষে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ফেসবুক ফেজকে ভেরিফাইড করেছে সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম…

ফেসবুকে ‘ভেরিফাইড’ সাকিব আল হাসান



অবশেষে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ফেসবুক ফেজকে ভেরিফাইড করেছে সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম ফেসবুক কতৃপক্ষ। আর এই তথ্যটা সাকিব নিজেই দিয়েছেন তাঁর পেজে।

এই মুহূর্তে ফেসবুকে সাকিবের অনুসারীর সংখ্যাটাও চমকে দেওয়ার মতো। প্রায় ২০ লাখ মানুষ সার্বক্ষণিক অনলাইনে অনুসরণ করে যাচ্ছেন দেশের ক্রিকেটের এই গর্বকে।

সাকিব তাঁর ফেসবুক পেজ ভেরিফাইড হওয়ার তথ্যটা তাঁর ওয়ালে লিখে সবাইকে অভিনন্দন জানিয়েছেন। তিনি তাঁর ২০ লাখ অনুসারীকে এই উপলক্ষে জানিয়েছেন ধন্যবাদ।

বর্তমান সময়ে বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনে বিভিন্ন খেলার তারকারা ফেসবুক ব্যবহারকে ‘অবশ্য কর্তব্য’ হিসেবেই দেখেন। ফেসবুকে অনুসারীদের দল স্বাভাবিক কারণেই বড় ক্রিকেটারদের। সাকিব ছাড়াও জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, মাশরাফি বিন মুর্তজা, নাসির হোসেন প্রমুখ তারকাদের ফেসবুক ফ্যান পেজ বেশ রমরমা। সাকিবের মতোই তাঁদের অনুসারী সংখ্যা নেহাতই কম নয়। সাকিব পথ দেখালেন। তাঁর দেখানো পথ অনুসরণ করে ফেসবুক কর্তৃপক্ষ হয়তো অন্যদের পেজকেও অচিরেই অনুমোদন দিয়ে দেবেন—অপেক্ষা এখন সেটাই দেখার।

পাতাটি ৪১৫৭ বার প্রদর্শিত হয়েছে।


ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার বর্ষসেরা একাদশে সাকিব-মুশফিক

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের পর এবার ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার ওয়েবসাইট ‘ক্রিকেট ডটকম ডটএইউ’-এর বর্ষসেরা টেস্ট একাদশেও…


পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে যতো রেকর্ড

২২ দিনের পরিক্রমা শেষে রোববার পর্দা নেমেছে পঞ্চম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের। বাংলাদেশে ১৬ মার্চ থেকে ৬…


ক্রিকেটকে পুরুষদের জন্য অনুপযুক্ত ভাবতেন হিটলার

ক্রিকেটের প্রতি অ্যাডলফ হিটলারের আগ্রহ সম্পর্কিত চমকপ্রদ তথ্য খুব কম মানুষই জানে। প্রথম বিশ্বযুদ্ধের সময়…


ফেসবুকে ‘ভেরিফাইড’ সাকিব আল হাসান

অবশেষে বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসানের ফেসবুক ফেজকে ভেরিফাইড করেছে সামাজিক যোগাযোগের অন্যতম জনপ্রিয় মাধ্যম…