দশদিক মাসিক

হোম ক্রীড়াসাকিবকে তিন ম্যাচ বরখাস্ত ও তিন লাখ টাকা জরিমানা

সাকিবকে তিন ম্যাচ বরখাস্ত ও তিন লাখ টাকা জরিমানা

অশোভন আচরণের দায়ে সাকিব আল হাসানকে তিন ওয়ানডে ম্যাচ বরখাস্ত ও তিন লাখ টাকা জরিমানা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। এর আগে বার কয়েক অশোভন আচরণ করলেও এই প্রথমবার শাস্তি পেলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার।
শুক্রবার রাতে বিসিবি এ শাস্তি ঘোষণা করে। এর ফলে সম্প্রতি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে শেষ ওয়ানডে এবং এশিয়া কাপের প্রথম দু’টি ম্যাচ খেলা হচ্ছে না সাকিবের।
শ্রীলঙ্কার চলমান বাংলাদেশ সফরে বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচে ২৪ রানে ক্যাচ আউট হয়ে ড্রেসিং রুমে ফিরে মেজাজ হারান সাবিক। একাধিকবার তার বিশেষ অঙ্গে হাত রেখে অশোভন ভঙ্গি করেন, যা টিভির কল্যাণে ক্রিকেট বিশ্বে প্রচার হয়ে যায়।
সাকিবের ওই অশোভন ভঙ্গি প্রদর্শনের কারণে তাকে ডেকে পাঠায় বিসিবি। ওই ঘটনায় সাকিব অনুতপ্ত বলে জানান তিনি। রাত আটটা ২০ মিনিটে বিসিবি তাকে তিন ওয়ানডে ম্যাচ বরখাস্ত ও তিন লাখ টাকা জরিমানার ঘোষণা দেয়।
বাংলাদেশ ক্রিকেটে অশোভন আচরণের জন্য এই প্রথম কোনো ক্রিকেটার শাস্তি পেলেন। অশোভন আচরণের কারণে তিন ম্যাচ বরখাস্তের পাশাপাশি তিন লাখ টাকা জরিমানার ঘটনাও এ দেশে প্রথম।
তিন ম্যাচ সাসপেন্ড হওয়ার অর্থ, শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজের শেষ ওয়ানডে ছাড়াও, এশিয়া কাপে ভারত এবং আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম দুটি ম্যাচেও খেলতে পারবেন না সাকিব।
বাংলাদেশ বোর্ডের পক্ষ থেকে এদিন একবিবৃতিতে বলা হয়। সাকিব আল হাসানকে জরিমানা এবং সাসপেন্ড করা হল, কারণ তিনি বোর্ডের ‘কোড অফ কন্ডাক্ট’ লঙ্ঘন করেছেন। এদিন ম্যাচ শেষে বিসিবি-র ডিসিপি-নারি কমিটির পক্ষ থেকে ডেকে পাঠানো হয। সাকিবকে সেখানে নিজের দোষ কবুল করা ছাড়াও তাকে দেওয়া শাস্তি মেনেও নিয়েছেন সাকিব’ পাশাপাশি বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডর অন্তবরতী চিফ অপারেটিং অফিসার নিজামুদ্দিন চৌধুরি এদিন বলেন, ‘গোটা ঘটনার জন্য ক্ষমা প্রার্থনা করেছেন সাকিব। একজন ক্রিকেটার হিসেবে নিজের এই আচরণ যে অত্যন্ত খারাপ এবং ক্ষমাহীন, তা কবুলও করেছেন সাকিব।


পাতাটি ১২৯৩ বার প্রদর্শিত হয়েছে।