দশদিক মাসিক

হোম ক্যারিয়ারউচ্চ শিক্ষায় অবদান রাখছে

উচ্চ শিক্ষায় অবদান রাখছে

ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি অব্ বিজনেস এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি
১৯৯১ সালে প্রতিষ্ঠিত ইন্টারন্যালনাল ইউনিভার্সিটি অব বিজনেস এগ্রিকালচার অ্যান্ড টেকনোলজি (আইইউবিএটি) ঢাকার উত্তারায় ৫.৫ একর স্থান জুরে নিজস্ব ক্যাম্পাসে পরিচালিত হচ্ছে। এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অনুমোদিত ৭টি অনুষদ ও ৩৯টি বিভাগে বর্তমানে ১০,০০০ (দশ হাজারের) অধিক শিক্ষার্থী অধ্যায়নরত এবং ২৫০ (দুই শ পঞ্চাশ) এর অধিক শিক্ষক ও ২০০ (দু‘শ) এরও বেশি কর্মকর্তা-কর্মচারী নিয়োজিত। সবুজের সমারহে ঘেরা আধুনিক উচ্চ শিক্ষার জন্য সম্পুর্ণভাবে সুস্বজ্জ্বিত ২৫টি’রও বেশি ল্যাব, গ্রন্থাগার, খেলার মাঠ ও অত্যাধুনিক শ্রেণীকক্ষ সম্বলিত ক্যাম্পাসে প্রবেশ করলে মনে হয় একবিংশ শতাব্দির জন্য বিশেষভাবে নির্মিত সৌন্দর্যমণ্ডিত একটি পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়। নিজ চোখে না দেখলে তা বিশ্বস করা কঠিন। নিজস্ব ৫.৫ একর জমির উপর স্থায়ী ক্যাম্পাস, ১৭টি রুটে নিজস্ব আধুনিক বাস সার্ভিসের মাধ্যামে ক্যাম্পাসে যাতায়াতের সুবিধা।
আইউইবিএটি ১৬ জানুয়ারী ১৯৯১ সালে স্থাপিত। বিশ্ববিদ্যালয়টি বাংলাদেশ সরকার ও ইউজিসি অনুমোদিত এবং বাংলাদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন ও বাংলাদেশ নার্সিং কাউন্সিলসহ দেশের সকল প্রতিষ্ঠান কর্তৃক স্বীকৃত। আইউইবিএটি আন্তর্জাতিক পর্যায়ে স্বীকৃত। ইউরোপ, আমেরিকা কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষণ ও দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার ৭৮টি উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সাথে সম্পর্ক রয়েছে। আইউইবিএটি বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থার সদস্য যার মধ্যে আছে এসোসিয়েশন অব কমনওয়েলথ ইউনিভার্সটিস (এসিইউ) ইংল্যান্ড, গ্রাজুয়েট ম্যানেজমেন্ট এডমিশন কাউসিন্স (জিএমএসি) ইউএসএ, ইন্টান্যাশনাল এসোসিয়েশন অব ইউনিভার্সিটি প্রেসিডেন্ট, ইউএসএ, রিজিওনাল সেন্টার অব এক্সপার্টাইজ অন এডুকেশন ফর সাস্টেইন্যবল ডেভেলপমেন্ট, ইউএনইউ-আইএএস, ইউনাইটেড ন্যশনস, ওয়ার্ল্ডওয়াইড অপোর্টুনিটিজ ফর ওরগ্যানিক ফার্মস, ইউকে, ওয়ার্ল্ড এসোসিয়েশন অব সয়েল এন্ড ওয়াটার কনজার্ভেশন, থাইল্যাণ্ড, এসোসিয়েশন অব ম্যানেজমেন্ট ডেভেলপমেন্ট ইনইস্টিটউশনস ইন সাউথ এসিয়া, ইন্ডিয়া, ইন্টারন্যাশনাল ফেডারেশন অব ওর্গানিক এগ্রিকালচার মুভমেন্ট, জার্মানী, গ্লোবাল কনসোর্টিয়াম অব হায়ার এডুকেশন এন্ড রিসার্স ফর এগ্রিকালচার, ইউএস, হবসন্স এমবিএ কেইছবুক, ইউকে, দি ইউরোপা ওয়ার্ল্ড অব লার্লিং, ইংল্যাণ্ড, ইয়ারবুক অব ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন্স, বেলজিয়াম, গ্লোবাল ডাইরেক্টরি অব রিসার্স ইনইস্টিটিউশনস, ইউএসএ, ইন্টারন্যাশনাল হ্যাণ্ডবুক অব ইউনিভার্সিটিস, ইউনেসকো, কমিউনিটি অব সায়েন্স (সিওএস), ইউএসএ, ইন্টারন্যাশনাল এডুকেশন ডাইরেক্টরি অব কলেজেস এন্ড ইউনিভার্সিটিস, অষ্ট্রেলিয়া ও নেটওয়ার্ক ফর নলেজ ট্রান্সফার অন সাস্টেইন্যবল এগ্রিকালচার টেকনোলোজিস এণ্ড ইমপ্রুভড মার্কেট লিংকেজ ইন সাউথ এণ্ড সাউথইষ্ট এশিয়া। এছাড়াও আইইউবিএটি এসোসিয়েশন অব প্রাইভেট ইউনিভার্সিটিস অব বাংলাদেশ ও ওয়ার্ল্ড পল্ট্রি সায়েন্স এসোসিয়েশন এর সদস্য। উইনেস্কোর ফ্রান্স থেকে প্রকাশিত ‘ইন্টারন্যাশনাল হ্যান্ড বুক অব ইউনির্ভাসিটিস’- এ আইইউবি এটি অন্তুভূক্ত হয়েছে। আইইউবিএটি আইইএলটিএস ও জিম্যাট এর জন্য একটি স্বীকৃত ইডুকেশন টেষ্টিং সার্ভিস (ইটিএস) সাইট।
আইইউবিএটি’র সার্বিক লক্ষ্য হচ্ছে উপযুক্ত শিক্ষা, প্রশিক্ষণ ও কাউন্সেলিংয়ের মাধ্যমে মানব সম্পদ উন্নয়ন ও জ্ঞান চর্চা যার মাধ্যমে আর্থসামাজিক উন্নয়নে সহায়ক ভুমিকা পালন করা। আইইউবিএটি এ সকল লক্ষ্য অর্জন করছে জ্ঞান সাংস্কৃতির সাথে সংশ্লিষ্ট ও সময়উপযোগী বিভিন্ন কোর্স অফারিং এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের বাস্তব অভিজ্ঞতা ও দক্ষতা অর্জনের সুযোগ স্মৃষ্টির মাধ্যমে। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়টি সময় উপযোগী বিভিন্ন গবেষণা কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশে স্মৃষ্টিমূলক শিক্ষাকে উৎসাহিত করছে।
গবেষণা প্রকাষণা:
আইইউবিএটি’র গবেষণা ধর্মি কার্যক্রমের মাধ্যমে জ্ঞান স্মৃষ্টির অংশ হিসাবে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত ও জাতীয় পর্যায়ে গুরুত্বপূর্ণ নিম্নে উল্লেখিত গবেষণা মনোগ্রাফগুলো প্রকাশ করেছে:
- ন্যাচারাল গ্যাস অপশন ফর বাংলাদেশ - ¯প্রীং ২০০১
- ইলেক্ট্রিসিটি ফর অল - সামার ২০০২ - এনার্জি পলিসি ফর বাংলাদেশ - সামার ২০০৪ - হোয়াট প্যারেণ্টস থিংক অব দেয়ার চিল্ড্রেন্স স্কুল - সামার ২০০৭ - বেরিয়ারস টু গার্লস সেকন্ডারী স্কুল পার্টিসিপেশন ইন রুর্য ল এরিয়া - ফল ২০০৭ - এ নিউ ম্যান্ডেট ফর রুরর্যাল ইলেক্ট্রিফিকেশন বোর্ড সামার ২০০৮ - বেঞ্চমার্কিং দি নিউট্রিশন্যাল স্ট্যাটাস অব ওমেন ইন টঙ্গি-আশুলিয়া রোড স্লামস সামার ২০১০ - ইমপ্রুভিং নিউট্রিশন্যাল স্ট্যাটাস ফর ওমেন ইন লো-ইনকাম হাউজহোল্ডস সামার ২০১২ - এডুকেশন সাক্সেস ও নিউট্রিশন: ইজ দেয়ার এ লিংক? সামার ২০১৩
ভর্তির যোগ্যতা ব্যাচেলর ডিগ্রী ও ডিপ্লোমা পর্যায়ে ভর্তিও জন্য নূন্যতম জিপি এ ২.০০ বা দ্বিতীয় বিভাগসহ বিজ্ঞান, বাণিজ্য, কলা, ব্যবসায় ব্যবস্থাপনা বা ভোকেশনাল এইচ এসসি/আলিম বা পলিটেকনিক্যাল, কৃষি, নার্সিং বা সমমানের শিক্ষাগত যোগ্যতা প্রোয়োজন। জিসিই শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে ২টি ‘এ’ লেভেল ও ৩টি ‘ও’ লেভেল। এমবিএ পর্যায়ে- যে কোন বিষয়ে ৪ বৎসরের ব্যাচেলর বা মাষ্টার ডিগ্রী অথবা ৩ বৎসরের অর্নাস বা ২ বৎসরের (পাশ) ডিগ্রী থাকতে হবে।
ভর্তি সেশন: স্পিং, সামার, ফল- এ ৩ (তিন) টি সেমিস্টারে শিক্ষার্থী ভর্তি করা হয়।
অনুষদ ও বিভাগসমূহের মাধ্যমে পরিচালিত প্রোগ্রামসমুহ:
ক). কলেজ অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন ১. মাস্টার্স অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন (এমবিএ) ২. ব্যাচেলর অব বিজনেস এডমিনিস্ট্রেশন (বিবিএ) ৩. ডিপ্লোমা ইন একাউন্টিং (ডিআইএ)
খ). কলেজ অব ইঞ্জিনিয়ারিং এন্ড টেকনোলজিঃ- ১. ব্যাচেলর অব কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং ২. ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং
৩. ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন ইলেক্ট্রিক্যাল এন্ড ইলেক্ট্রনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং
৪. ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং ৫. ডিপ্লোমা ইন কম্পিউটার সায়েন্স এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং
গ). কলেজ অব আর্টস এন্ড সায়েন্সঃ- ব্যাচেলর অব আর্টস ইন ইকোনমিক্স
ঘ). কলেজ অব এগ্রিকালচারাল সায়েন্স - ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন এগ্রিকালচার
ঙ). কলেজ অব ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্টঃ- - ব্যাচেলর অব আর্টস ইন ট্যুরিজম এন্ড হসপিটালিটি ম্যানেজমেন্ট
চ). কলেজ অব নার্সিং - ব্যাচেলর অব সায়েন্স ইন নার্সিং
বিশেষ সুযোগ-সুবিধা:
ক্রেডিট ট্রান্সফার, স্কলারশীপ, অনুদান, বেতন মওকুফ, ডেফার্ট পেমেন্ট, শিক্ষাকালীন কর্মসংস্থান এবং শিক্ষা ঋণের মাধ্যামে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। ঢাকা শহরের গুরুত্বপূর্ন স্থানগুলির সাথে আধুনিক বাস সার্ভিসের মাধ্যমে ক্যাম্পাসে নিজেস্ব বাসে বিনা পয়সায় যাতায়াতের সুবিধা। এছাড়াও উল্লেখিত প্রোগ্রামসমূহে অধ্যায়নে শিক্ষার্থীদের মেধার ভিত্তিতে নিম্নোক্ত হারে টিউশন ফি স্কলারশিপ দেয়া হয়:
মেয়ে শিক্ষার্থীরা অতিরিক্ত ১৫% টিউশন ফি ওয়েভার উপভোগ করে।
শিক্ষার পরিবেশ:
ধ বৃটিশ স্থপতির সহযোগিতায় বিশেষ ডিজাইনে নির্মিত একবিংশ শতাব্দীর বিশ্ববিদ্যালয়
ধ তুরাগ নদীর তীরে স্বাস্থ্যসম্মত প্রাকৃতিক সৌন্দর্যমণ্ডিত পরিবেশ
ধ আধুনিক উত্তরা আবাসিক এলাকার অংশ
ধ ছোট আকারের ক্লাস যাতে প্রতিটি শিক্ষার্থী ব্যক্তিগত পর্যায়ে পাঠ নিতে পারে
ধ সময়সূচি অনুযায়ী ক্লাসের ব্যবস্থা নিশ্চিত করার রেকর্ড
ধ সকল শিক্ষার্থীকে ইংরেজিতে পারদর্শী করে তোলা হয়
ধ সকল শিক্ষার্থীর জন্য কম্পিউটার প্রশিক্ষণ
ধ ইংরেজি মাধ্যম
ধ আন্তর্জাতিক মানসম্পূর্ণ শিক্ষা ব্যবস্থা
ধ উন্নতমানের দেশী ও বিদেশী শিক্ষক যাঁদের মধ্যে উত্তর আমেরিকা ও ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন এর দেশ সমূহ ও অষ্ট্রেলিয়ার সার্বক্ষণিক পর্যায়ের শিক্ষকও আছেন।
ধ ক্রেডিট ট্রান্সফার ও উচ্চ শিক্ষার সুবিধাসহ বিশ্বের অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে সম্পর্ক
ধ উৎকর্ষতা সম্পন্ন পাঠদান এবং স্বচ্ছতা
ধ পেশাদারি কাউন্সেলিং ও গাইডেন্স
ধ স্কলারশিপ, অনুদান, বেতন মওকুফ, ডেফার্ড পেমেন্ট, শিক্ষাকালীন কর্মসংস্থান, বিশেষ সুবিধা এবং শিক্ষা ঋণের মাধ্যমে আর্থিক সহযোগিতা
ধ গ্রাজুয়েটদেরকে পেশা উপযোগী করে গড়ে তোলা
ধ পেশাগত নির্দেশনাসহ দেশে-বিদেশে প্রাক্টিকাম ও কর্মসংস্থান
ধ উত্তরাতে যুক্তিসংগত ভাড়ায় থাকার সুবিধা
ধ মেট্রোপলিটন ঢাকার বিভিন্ন অংশ ও পাশের শহর গুলির সাথে সহজ যোগাযোগ
ধ এমবিএ ও ইঞ্জিনিয়ারিং প্রোগ্রামের ক্ষেত্রে সান্ধ্যাকালীন ক্লাসের বিশেষ ব্যবস্থা
ধ উত্তরা থেকে ক্যাম্পাস পর্যন্ত সার্বক্ষণিক বিনামূল্যে যাতায়াতের জন্য শাটল সার্ভিস
ক্রেডিট ট্রান্সফার: ইউরোপ, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ, দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া এবং চীনের অনেকগুলি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাথে ক্রেডিট ট্রান্সফারের বিষয় চুক্তি রয়েছে। আইইউবিএটির গ্র্যাজুয়েটরা বিশ্বের যে কোন দেশের বিশ্ববিদ্যালয়ে উচ্চ শিক্ষা গ্রহণ করতে পারে।
বিস্তারিত তথ্যের জন্য দেখুন: www.iubat.edu


পাতাটি ৬০৩৪ বার প্রদর্শিত হয়েছে।