সম্পাদকীয়

হোম দশদিক সংখ্যাঃ ৭১


সানাউল হক
সম্পাদক,দশদিক


বিদায় ২০১৬, স্বাগত ২০১৭ সাল। বহু ঘটনার সাক্ষী হয়েগেল পুরাতন বছরের রাত ১২টা ০১মিনিটের সাথে সাথে স্মৃতি হয়ে গেল ইংরেজি ২০১৬ সাল। নতুন সূর্যদ্বয়ের সাথে সাথে নতুন বছর ২০১৭ সালের নতুন দিনের শুরু। গত বছরের ঘটনা গুলো সময়ের ছায়া পথে হারিয়ে যাবে অতিতের গর্ভে। এর মাঝেই অতীত ফিরবে স্মৃতি হয়ে । এসেছে নুতন বছর । নতুনকে স্বাগত জানাতে মানুষের উদ্দীপনা সবসময়। নতুনের মধ্যে নিহিত সম্ভাবনা। সেই সম্ভাবনা বাস্তবে রূপ নেয় নিকট অতীত অথবা সুদূর অতীত থেকে নেয়া শিক্ষা থেকে। তাই নতুন সম্ভাবনাকে বাস্তবে রূপায়ন করার সুযোগ করে দিতে এল নতুন বছর। সময় কারো জন্য থেমে থাকেনা। চলতে থাকে আপন গতিতে। এভাবেই চলে যায় দিন, মাস, বছর। পুরনো দিনের গ্লানি ভুলে নতুন বছরে নতুন করে বিশ্বকে দেখার, দেখানোর তাগিদ নিয়ে নতুন সূর্যকে আপন করে নিবে বিশ্ব। নতুন মানেই চির তরুন, নতুন মানেই এগিয়ে যাওয়ার স্বপ্ন। আর তাই নতুন বছর মানেই ছোট বড় সবার কাছে নতুন দিনের প্রেরণা, নতুন ভাবে জেগে ওঠার তাগিদ, অনিষ্টের বিরুদ্ধে নতুন করে লড়াই করার স্বপ্ন। বাংলাদেশে ইংরেজি নতুন বছর মানেই শীতের কুয়াশাভেদ করে আসা নতুন সূর্যকে বরণ করে নেওয়া। উঠোনে বসে নতুন আসা নরম রোদকে সঙ্গী করে পিঠা উৎসবে মেতে উঠা। বাংলাদেশে ইংরেজি নতুন বছর মানেই ঘর ভর্তি নতুন বইয়ের গন্ধ। নতুন ক্লাসে ওঠার আনন্দ। নতুন বইয়ের মলাট বাঁধার আনন্দ। আর নতুন করে শিক্ষার্থীদের স্বপ্ন দেখা, এবার ভালো করবই।

নতুন বছরের শুভাগমনে আমাদের দেশের আগের বছরের জঞ্জাল ধুয়ে-মুছে যাক। এইটাই হোক প্রত্যাশা। গত বছর আমাদের যেমন ছিল সফলতা, তেমনি ছিল হয়তো কিছু ব্যর্থতাও। সব ব্যর্থতা কাটিয়ে এই নতুন বছরটি যেন রাজনৈতিক অস্থিরতা, হরতাল- অবরোধ, হানাহানি আর নৈরাজ্যের মধ্যে না কাটে। নতুন বছর সবার জীবনে বয়ে আনুক অনাবিল সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি। ২০১৭ সালটি জাতি-ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে সবার জন্য কল্যাণকর হোক। সবাইকে নব উদ্দোমে এগিয়ে যাবার প্রেরনা যোগাবে নববর্ষ। নতুন বছরে আমাদের সবার প্রত্যাশা ক্ষুধা, দারিদ্রমুক্ত, অসামপ্রদায়িক একটি সোনার বাংলাদেশের। সবাইকে জানাই ইংরেজি নতুন বছরের প্রাণঢালা শুভেচ্ছা। শুভ হোক ইংরেজি নববর্ষ। আমাদের সকলের জীবন থেকেই চলে গেল ২০১৬ সাল। এলো নতুন বছর। স্বাগত ইংরেজি নববর্ষ ২০১৭। দশদিকের সকল পাঠক, বিজ্ঞাপন দাতা, শুভানুধ্যায়ীদের জানাই ইংরেজি নববর্ষের প্রীতি ও শুভেচ্ছা।

পাতাটি ৭১৫ বার প্রদর্শিত হয়েছে।