• শিরোনাম

    আকাশে সেটেলাইট না পাঠিয়ে রাস্তায় কিছু ফায়ার হাইড্রেন্ট লাগান

    | ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | ৯:২১ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে 1496 বার

    আকাশে সেটেলাইট না পাঠিয়ে রাস্তায় কিছু ফায়ার হাইড্রেন্ট লাগান

    মিনার রশিদ : এক নন্দিত নরকে আটকা পড়েছে ষোলকোটি বনি আদম !

    শাসক শ্রেণীর চোখে এই শহরটিকে লাগে লসএন্জেলস কিংবা প্যারিসের মত । সংগত কারণেই স্বপ্নের এই শহরটিকে ভীতিকর ও ভয়ংকর শহরগুলির মধ্যে প্রথম সারিতে ফেলেছে সংশ্লিষ্ট বিশ্ব সংস্হাগুলো । এই শহরটি সত্যি সত্যি মৃত্যু ফাঁদ হয়ে পড়েছে ।

    চকবাজারের ভয়াবহ ঘটনা দেখে মনটি বিক্ষিপ্ত হয়ে পড়েছে । কী লিখব খুজে পাচ্ছি না । এটা দুর্ঘটনা নয় – স্রেফ খুন বা গণহত্যা । এর দায় রাষ্ট্র বা সরকার এড়াতে পারে না ।

    আবাসিক এলাকায় কেমিকেল ফ্যাক্টরি বা গুদাম বানানো রীতিমত ক্রাইম বা অপরাধ । এগুলি দেখা বা নিয়ন্ত্রণের যেন কেউ নেই ।

    ওবায়দুল কাদের বলেছেন , শিক্ষা পেলাম , মনযোগী হব ।

    মিনার রশিদ

    অথচ এই শিক্ষা আগেও পেয়েছেন , মনযোগী হন নি ।

    একই রকমের দুর্ঘটনা ঘটেছে ২০১০ সালে নিমতলী নামক স্থানে । এরপর ৮০০ কেমিকেল কোম্পানীর সন্ধান পাওয়া গেছে। কিন্তু সেসব অবৈধ গুদাম বা ফ্যাক্টরি স্থানান্তরের কোনো উদ্যোগ আর দেখা যায় নি ।

    এগুলি কাদের দায়িত্ব ছিল ?

    মানুষকে যদি এভাবেই মরতে হয় তবে এই রাষ্ট্র ব্যবস্থা বা সরকার থেকে লাভ কী ?

    এই কথাগুলি বলাও এদেশে আর নিরাপদ নয় । তথাকথিত উন্নয়নের নামে এমন এক নন্দিত নরকে দেশবাসীকে আটকে ফেলা হয়েছে ।

    আরো যে ভয়াবহ খবরটি জানা গেলো , ফায়ার ব্রিগেইডকে ১ মাইল দূরের পুকুর থেকে পানি ফায়ার হোজের মাধ্যমে এনে আগুনে ঢালতে হয়েছে ।

    মানুষের পায়ের চাপায় সেই সব হোজ চেপ্টে গেছে ।সেই পানির বেগ বাচ্চা ছেলের প্রশ্রাবের বেগের চেয়ে বেশী ছিল না । ফলে রাত দশটায় আগুন লাগার পর নেভানো হয়েছে সকাল সাত টায়। অর্থাৎ দাহ্য পদার্থ পুডে যাওয়ার পর আগুন আপনা আপনি নিস্তেজ হয়ে পড়েছে ।

    দেশের উন্নয়নের কথা শুনতে শুনতে দেশবাসী ক্লান্ত হয়ে পড়েছে ।

    এই দেশ অন্যের কোম্পানী ভাড়া করে নিজের নাম ফাটানোর লাগি মহাকাশে সেটেলাইট পাঠায় ! তজ্জন্যে

    এক ধরণের অপার্থিব পুলক অনুভব করে । অথচ তার চেয়েও অনেক কম টাকায় সংযুক্ত ছবির মত প্রতিটি শহরে বিভিন্ন পয়েন্টে ফায়ার হাইড্রেন্ট ( Fire Hydrant ) সংযোগ দেয়া সম্ভব । এতে আগুন নির্বাপন অনেক সহজ হয়ে পড়ত । আগুন লাগার পর শহরের মধ্যে পুকুর খুঁজতে হতো না !

    বিভিন্ন ফালতু কাজে লাখ লাখ কোটি টাকা অপচয় করা হচ্ছে । লুটপাটের কথা আর নাই বা বল্লাম ।

    অথচ সামান্য কিছু টাকা ঠিকভাবে খরচ করলে এই দেশের মানুষকে অনেক শান্তি ও স্বস্তি দেয়া সম্ভব । এদেশের মানুষের আলো ঝলমলে প্যারিস বা লসএন্জেলস এর দরকার নেই । এদের দরকার শুধু একটি নিরাপদ ঢাকা শহর । যে শহরে অসহায় মাকে বলতে হবে না , “ আমার ছেলের এক টুকরো মাংস এনে দাও , আমি একটু কোলে নেই । “

    জানি না এই মায়ের আহাজারি এই সব গণশত্রু , ভন্ড ও প্রতারকদের কানে ঢুকবে কি না !

    মন্তব্য করুন

    মন্তব্য

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দশদিক