• শিরোনাম

    আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে নাগরিকত্ব আইন করতে হবে: মমতা

    | ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ | ৯:৪৮ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে 173 বার

    আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে নাগরিকত্ব আইন করতে হবে: মমতা

    ভারতে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএবি) ও জাতীয় নাগরিকপঞ্জির (এনআরসি) বিরোধীতায় রাস্তায় নেমেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কলকাতায় এক মিছিলের পর বক্তব্যে তিনি বলেন, তার মৃতদেহের উপর দিয়ে ‘এনআরসি’ ও ‘সিএবি’ করতে হবে।

    স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম জানিয়েছে, সিএবি ও এনআরসির প্রতিবাদে সোমবার দুপুরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এক মিছিল করেছে তৃণমূল কংগ্রেস। মিছিলটি কলকাতার রেড রোডের অম্বেডকর মূর্তির পাদদেশ থেকে শুরু হয়ে জোড়াসাঁকোতে গিয়ে শেষ হয়। এরপর সেখানে এক পূর্ব নির্ধারিত সমাবেশ করেন মমতা।



    সমাবেশে মমতা বলেন, ‘জোড়াসাঁকো ঠাকুরবাড়িকে সাক্ষী রেখে কয়েকটা কথা বলতে এসেছি। এক সময় যখন বঙ্গভঙ্গ হয়েছিল, হিন্দু মুসলিমের হাতে রাখি পরিয়ে ‘বাংলার মাটি-বাংলার জল’ গান গেয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ।’

    তিনি আরও বলেন, ‘আমাদের মধ্যে কোনও ভেদাভেদ নেই। আমরা ধর্মের ভিত্তিতে ভাগাভাগি মানি না। ধর্ম যার যার, সংবিধান সবার।’

    মমতা বলেন, ‘আমি বাংলায় আছি। আমার মৃতদেহের উপর দিয়ে এনআরসি করতে হবে। সিএবি করতে হবে।’ সিএবি প্রত্যাহার না করা পর্যন্ত রাস্তায় থাকার ঘোষণা দিয়ে মমতা বলেন, ‘আমাদের সরকারকে ফেলে দেবে? ফেলে দিন। এই ইস্যুতে আমরা যে লড়াই করছি, তা থামবে না।’ তাছাড়া পশ্চিমবঙ্গকে দখল করতে সরকারের পরিকল্পনাকে ভেস্তে দেওয়া হবে বলেও হুঁশিয়ারি দেন এই নেত্রী।

    সমাবেশে বক্তব্যে মমতা ট্রেন, রাস্তা ও পোস্ট অফিসে আগুন না দিতে সকলের প্রতি আহ্বান জানান।

    উল্লেখ্য, চলতি মাসের ১১ তারিখে ভারতীয় সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হয়। বিলটি পাশের পর থেকেই উত্তাল হয়ে ওঠে ভারত। বিলটি আইনে পরিণত হলে বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে ভারতে যাওয়া হিন্দু, বৌদ্ধ, শিখ, জৈন, পারসিসহ অমুসলিম অবৈধ অভিবাসীরা নাগরিকত্ব পাবে। সেক্ষেত্রে বিপাকে পড়বে সেখানকার মুসলিমরা।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে দশদিক