• শিরোনাম

    কাশ্মিরে অব্যাহত সহিংসতায় নিহত ৬

    | ১৭ অক্টোবর ২০২১ | ৩:৫৬ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে 317 বার

    কাশ্মিরে অব্যাহত সহিংসতায় নিহত ৬

    ভারত নিয়ন্ত্রিত কাশ্মির উপত্যকায় অব্যাহত সহিংসতায় ছয়জন নিহত হয়েছে। শনিবার ভিন্ন ভিন্ন সহিংসতার ঘটনায় এই ছয় ব্যক্তি নিহত হন।

    এই নিয়ে গত দুই সপ্তাহের সহিংসতায় কাশ্মির উপত্যকায় নয় বেসামরিক লোকসহ মোট ২৮ জন নিহত হয়েছে।



    কাশ্মির পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল বিজয় কুমার শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, রাজধানী শ্রিনগরের বাইরে বন্দুক যুদ্ধে দুই বিচ্ছিন্নতাকামী যোদ্ধা নিহত হয়েছে। এদের মধ্যে একজন কাশ্মির রেজিসটেন্স ফ্রন্টের শীর্ষ নেতা উমর মুশতাক খানদাই।

    এর কিছু সময় পরে শ্রিনগরে অজ্ঞাত বন্দুকধারীদের গুলিতে কাশ্মিরের বাইরে থেকে আসা এক ফেরিওয়ালা ও এক শ্রমিক নিহত হন।

    এদিকে ভারতীয় সামরিক বাহিনীর এক বিবৃতিতে জানানো হয়, কাশ্মিরে ভারত-পাকিস্তান যুদ্ধবিরতি সীমান্তে ‘ভয়াবহ বন্দুকযুদ্ধে’ দুই সৈন্য নিহত হয়েছে।

    সীমান্তে ভারতীয় সামরিক বাহিনীর চলমান বিচ্ছিন্নতাকামী কাশ্মিরী যোদ্ধাদের দমন অভিযানের সাথে তারা যুক্ত ছিলো বলে বিবৃতিতে জানানো হয়।

    এই নিয়ে ভারতীয় বাহিনীর অভিযানে নয় সৈন্য নিহত হয়েছে।

    এদিকে কাশ্মির উপত্যকায় চলমান সহিংসতায় তদন্তের অংশ হিসেবে এক হাজারের বেশি লোককে শনিবার পর্যন্ত গ্রেফতার করা হয়েছে বলে বার্তা সংস্থা এএফপিকে জানান কাশ্মির পুলিশের এক কর্মকর্তা।

    অপরদিকে শনিবার ভারত থেকে কাশ্মিরের বিচ্ছিন্নতাকামী রাজনৈতিক দলগুলোর জোট অল পার্টিস হুররিয়াত কনফারেন্সের নেতা মিরওয়াইজ উমর ফারুক এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ভারত সরকারের ‘নিয়মতান্ত্রিক নিপীড়ণ’ কাশ্মিরের তরুণদের সহিংসতার সাথে জড়িয়ে পড়তে বাধ্য করছে।

    ১৯৪৭ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতার পর থেকেই ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে কাশ্মির নিয়ে দ্বন্দ্ব চলে আসছে। উভয়দেশই পুরো ভূখণ্ডটি নিজেদের দাবি করছে। ভূখণ্ডটির অধিকার নিয়ে দুই বার যুদ্ধে জড়িয়েছে উভয়দেশ।

    কাশ্মিরের অনেক বাসিন্দাই পাকিস্তানে সাথে যুক্ত হওয়া বা স্বাধীন রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠার লড়াইয়ে সমর্থন করে আসছেন। নয়াদিল্লি কাশ্মিরীদের এই মনোভাব ও সংশ্লিষ্ট তৎপরতাকে পাকিস্তানের সমর্থনপুষ্ট সন্ত্রাস হিসেবে বর্ণনা করে আসছে। অন্যদিকে পাকিস্তান এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

    পাকিস্তান, ভারত ও স্থানীয় কাশ্মিরীদের এই লড়াইয়ে সরকারি বাহিনীর সদস্য ও বিচ্ছিন্নতাকামী বিদ্রোহীসহ হাজার হাজার সাধারণ মানুষ নিহত হয়েছে।

    সূত্র : দ্য নিউজ ইন্টারন্যাশনাল

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

  • ফেসবুকে দশদিক