• শিরোনাম

    কাশ্মিরে জামায়াতে ইসলামি নিষিদ্ধ: মেহবুবা মুফতির হুঁশিয়ারি

    | ০৩ মার্চ ২০১৯ | ১০:৪৯ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে 324 বার

    কাশ্মিরে জামায়াতে ইসলামি নিষিদ্ধ: মেহবুবা মুফতির হুঁশিয়ারি

    ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্মু ও কাশ্মিরে জামায়াতে ইসলামী নিষিদ্ধ করার ফল ভয়ংকর বলে মন্তব্য করেছেন সাবেক মুখ্যমন্ত্রী মেহবুবা মুফতি। তিনি বলেছেন, ‘কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের ফল ভুগতে হবে। প্রতিশোধ নিতে উপত্যকায় যেকোনো রকমের ঘটনা ঘটাতে পারে জামায়াত।’

    গতকাল (শনিবার) নিজ দপ্তরে এ হুঁশিয়ারি দেন জম্মু-কাশ্মির পিপলস ডেমোক্রেটিক পার্টির (পিডিপি) সভানেত্রী মেহবুবা।



    গত ১৪ ফেব্রুয়ারি পুলওয়ামায় সন্ত্রাসী হামলার পর জামায়াতে ইসলামির জম্মু-কাশ্মির শাখাকে পাঁচ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করে কেন্দ্রীয় সরকার। সংগঠনটির বিরুদ্ধে কাশ্মিরের সশস্ত্র বিদ্রোহকে সমর্থন দেয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে। এছাড়া, কাশ্মিরের স্বাধীনতাকামী নেতাদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা প্রত্যাহার করা হয়। এ দুই সিদ্ধান্তের কারণে কাশ্মির উপত্যকায় শান্তি ফেরার বদলে অশান্তি আরো বাড়বে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতি।

    তিনি বলেন, ‘জামায়াতে ইসলামি সেই অর্থে জঙ্গি সংগঠন নয়। তাদের নির্দিষ্ট সামাজিক ও রাজনৈতিক আদর্শ আছে। কোনো আদর্শকে এভাবে দমন করা নিন্দনীয়। দলটির তরুণ সদস্যদের গ্রেপ্তার করে কোনো লাভ হবে না। বরং তাদের প্রতিশোধস্পৃহা বেড়ে যাবে।’

    বিজেপির উদ্দেশে মেহবুবা মুফতি বলেন, ‘আপনাদের সঙ্গে আরএসএস, শিবসেনা, জনসংঘ আছে। যারা কেবল মাংসাশী সন্দেহে গণপ্রহার করেন। তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয় না। আর জামায়াত তো উপত্যকায় গরিব মানুষদের সাহায্য করে। স্কুল তৈরি করে ছোট ছোট বাচ্চাকে শিক্ষা দেয়। আর তাদেরই আপনারা ধরে ধরে জেলে পুরে দিতে চাইছেন। এর ফল ভয়ংকর হবে। দয়া করে জম্মু-কাশ্মিরকে জেলে পরিণত করবেন না।’

    মেহবুবা মুফতি আরো বলেন, ‘জম্মু-কাশ্মিরে পিডিপি-বিজেপি জোট থাকতে আমরা বিজেপিকে যা খুশি করতে দিইনি। কিন্তু এবার আর তা হচ্ছে না। এখন একজন কাশ্মিরি মার খেলে বাকিরা আনন্দ পাচ্ছেন।’

    গত ২৮ ফেব্রুয়ারি এক বিবৃতিতে ভারতীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ও জনপরিবেশ বিঘ্ন ও অবৈধ সংশ্লিষ্টতার কারণে জামায়াতে ইসলামিকে নিষিদ্ধ করা হয়েছে। তাদের দাবি, জম্মু কাশ্মিরে সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ড চালানো জঙ্গিদের সঙ্গে যোগসাজস রয়েছে দলটির।

    এ সিদ্ধান্তের প্রতিক্রিয়ায় এক বিবৃতিতে দলটি বলেছে, ভারতের এই ‘আয়রন ফিস্ট পলিসি’ কাজ করবে না। এর আগেও তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা এসেছে। সরকার সেনাশক্তি ব্যবহার করেছে কিন্তু লাভ হয়নি। এবারও হবে না।#

    পার্সটুডে

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দশদিক