• শিরোনাম

    গভীর শ্রদ্ধায় সুবীর নন্দীকে স্মরণ করেছে জাপান প্রবাসীরা

    রাহমান মনি | ২৪ জুন ২০১৯ | ৯:৪১ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে 291 বার

    গভীর শ্রদ্ধায় সুবীর নন্দীকে স্মরণ করেছে জাপান প্রবাসীরা

    গভীর শ্রদ্ধা আর অন্তর নিংড়ানো ভালোবাসায় প্রয়াত কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দীকে স্মরণ করেছে জাপান প্রবাসীরা।  সম্প্রতি প্রয়াত একুশে পদক সহ পাঁচ বারের জাতীয় চলচ্চিত্র সংগীত পুরষ্কার প্রাপ্ত প্রখ্যাত সংগীত শিল্পী সুবীর নন্দী  স্মরনে জাপান প্রবাসী বাংলাদেশ কমিউনিটি এক স্মরণ সভার আয়োজন করে।

      ১৬ জুন ২০১৯ রোববার প্রবাস প্রজন্ম জাপান এর ব্যানারে আয়োজিত শোক সভায় সর্ব স্তরের প্রবাসীদের ঢল নামে তাদের প্রিয় এই শিল্পীর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে। জাপান প্রবাসীরা  তাদের প্রিয় এই শিল্পীর প্রতি অন্তর নিংড়ানো ভালোবাসা ও গভীর  শ্রদ্ধা জানিয়েছে এদিন। উল্লেখ্য , প্রবাস প্রজন্ম জাপান গুনী এই সংগীত শিল্পীকে প্রবাস প্রজন্ম সন্মাননা ২০১৩ ও বিশেষ সন্মাননা ২০১৪ প্রদান করে। সেই থেকে সুবীর নন্দীর সাথে জাপান প্রবাসীদের আত্মার সম্পর্ক গড়ে উঠে। তাই, একাধিক আয়োজন থাকা সত্বেও  তার প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে দূরদূরান্ত থেকে প্রবাসীরা জড়ো হন টোকিওর কিতা সিটি আকাবানে বুনকা সেন্টার বিভিও হলে।



    নিয়াজ আহমেদ জুয়েল এর উপস্থাপনায় শোক সভার শুরুতেই প্রয়াত এই শিল্পীর প্রতি প্রবাসী কমিউনিটির সমন্বয়ে সম্মিলিত ফুলেল শ্রদ্ধার্ঘ জানানো হয় ।  এরপর তার বিদেহী আত্মার প্রতি সন্মান জানিয়ে দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এই সময় সম্প্রতি পরলোকগত বিভিন্ন গুনীজনের প্রতি ও সন্মান প্রদর্শন করা হয় । তাদের মধ্যে চিত্র জগতের টেলি সামাদ , সাংবাদিক মাহফুজুল্লাহ , নাট্যকার মমতাজ উদ্দিন সহ আরো অনেককেই ।

      সবার প্রতি কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জানিয়ে  প্রবাস প্রজন্ম সন্মাননা জানানোয় সুবীর নন্দী কে বেঁছে নেয়া এবং জাপানে তার সান্নিধ্য নিয়ে স্মৃতিচারণ মুলক বক্তব্য রাখেন রাহমান মনি।

      এছাড়াও স্মৃতিচারণ মুলক বক্তব্য রাখেন মোঃ নাজিম উদিন , কাজী ইনসানুল হক , অজিত কুমার বড়ুয়া, খন্দকার আসলাম হিরা , বিমান কুমার পোদ্দার ,শাম্মী আক্তার বাবলী , মীর রেজাউল করীম রেজা, সালেহ মোঃ আরিফ এবং সুখেন ব্রহ্ম প্রমুখ ।
        বক্তারা তাঁর শিল্পী জীবনের পাশাপাশি মানবিক জীবনের ভূয়সী প্রশংসা করে বলেন, এমন বড় মাপের একজন জাতীয় শিল্পী হওয়া সত্বেও অত্যন্ত বিনয়ী এবং মেধাবী এই শিল্পী ছিলেন নিরহঙ্কার। তার মতো শিল্পীর প্রস্থান পূরণ হবার নয়।

      সভা চলাকালীন এক পর্যায়ে সুবীর নন্দীর আত্মজা ফাল্গুনী নন্দী টেলিফোনে কাজী ইনসানের সাথে যোগাযোগের মাধ্যমে প্রবাসীদের এই আয়োজনের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।  তিনি বলেন আজ বিশ্ব বাবা দিবস। এই প্রথম আমি আমার বাবা কে বাবা দিবসের কৃতজ্ঞতা জানানো থেকে বঞ্চিত হয়েছি কিন্তু সুদুর জাপানে আপনারা আমার বাবাকে স্মরণ করছেন এটা আমাদের পরম পাওয়া। আমার বাবা ওপার থেকে তা দেখছেন নিশ্চয় এবং যেখানে আছেন ভালো আছেন। সব শেষে ফাল্গুনী নন্দী তার পিতার আত্মার শান্তি কামনা করতে অনুরোধ জানান। তার বক্তব্য লাউড  স্পীকারের মাধ্যমে সবাইকে শোনানো হয় ।

      এরপর রাহমান মনির গ্রন্থনা এবং গোলাম মাসুম জিকো’র সম্পাদনা ও ধারা বর্ণনায় সুবীর নন্দীর উপর একটি প্রামান্য চিত্র প্রদর্শন করা হয়।
      প্রয়াত সুবীর নন্দীর শেষ ইচ্ছার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তাঁর করা জনপ্রিয় গানের ভাণ্ডার থেকে সংগীত পরিবেশন করে প্রবাসীদের প্রিয় সাংস্কৃতিক সংগঠর “উত্তরণ বাংলাদেশ কালচারাল গ্রুপ জাপান”।
    সংগীত অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উত্তরণ এর সিনিয়র শিল্পী সবার প্রিয় খন্দকার ফজলুল হক রতন। যার সুচনা করা হয় নতুন প্রজন্ম’র শিশু শিল্পী তনুতা ঘোষ এর সংগীত পরিবেশনা দিয়ে।
      উত্তরণ সদস্য ছাড়াও উপস্থিত দর্শকদের মধ্য থেকে সুবীর নন্দীর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে তাঁর করা সংগীত পরিবেশন করেন পপি ঘোষ।
      যন্ত্রে সহযোগিতায় ছিল উত্তরণ বাংলাদেশ কালচারাল গ্রুপ জাপান ।
      সার্বিক ব্যবস্থাপনায় ছিলেন রাহমান মনি । সহযোগিতায় ছিলেন সালেহ মোঃ আরিফ, বিমান কুমার পোদ্দার, সায়মন আহমেদ, নাজমুল ইসলাম রতন , কামাল উদ্দিন টুলু,কাজী ইনসানুল হক, নিয়াজ আহমেদ জুয়েল, গোলাম মাসুম জিকো প্রমুখ ।।

    মন্তব্য করুন

    মন্তব্য

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০২ এপ্রিল ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০  
  • ফেসবুকে দশদিক