• শিরোনাম

    জন্মহার কমার জন্য দায়ী অনলাইন গেমস!

    | ০৮ আগস্ট ২০২১ | ৯:৩১ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে 352 বার

    জন্মহার কমার জন্য দায়ী অনলাইন গেমস!

    অনলাইন ভিত্তিক গেমসকে ‘ইলেকট্রনিক ড্রাগস’ বলে আখ্যায়িত করেছে চীনের রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যম। এমনকি চীনের স্থানীয় গেমিং কোম্পানি টেনসেন্টকে এজন্য সতর্কও করেছে স্থানীয় প্রশাসন।

    তবে গণমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশের পর টেনসেন্টসহ দেশটির বৃহৎ দুই গেমিং কোম্পানির শেয়ারের মূল্যে দরপতন ঘটেছেন।
    সম্প্রতি অনলাইন গেমসকে ইলেকট্রনিক ড্রাগস উল্লেখ করে সংবাদ প্রকাশিত হয় চীনের রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা সিনহুয়া’তে। পরবর্তীতে সেটি চীন সরকার নিয়ন্ত্রিত আরেক মিডিয়া ইকোনমিক ইনফরমেশন ডেইলি’তে প্রকাশিত হয়।



    এমন সংবাদের পরেই, টেনসেন্ট এবং নেটইজের শেয়ারের মূল্য ১০ শতাংশ পর্যন্ত পড়ে যায়। এরমধ্যে হংকং, চীনের মূল অংশ এবং যুক্তরাষ্ট্রের শেয়ার বাজারে নিবন্ধিত থাকা টেনসেন্ট সকল শেয়ার বাজারেই তার দর হারায়।

    ইকোনমিক ইনফরমেশন ডেইলি’তে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, চীনের শিশু-কিশোররা টেনসেন্ট মালিকানাধীন ‘অনার অব কিংস’ নামের গেমসে দিনে ৮ ঘণ্টারও বেশি সময় ব্যয় করে। বিষয়টি মাদক বা ড্রাগসের মতো।

    এছাড়াও চীনের জন্মহার কমে যাওয়ার জন্য অনলাইন ও ডিজিটাল গেমসকে দায়ী করেছেন দেশটির অনেক বিশেষজ্ঞ। তারা বলছেন, সাম্প্রতিককালের এক জরিপ অনুযায়ী, চীনে বর্তমানে জন্মহার সাত দশকের মধ্যে সব থেকে কম। নাগরিকদের একটি বড় অংশই গেমসের মধ্যে বুদ হয়ে থাকেন।

    রাষ্ট্রায়ত্ত গণমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশের পর নড়েচড়ে বসেছে গেমিং কোম্পানিগুলো। টেনসেন্ট জানিয়েছে, অনার অব কিংস গেমসে যেন শিশুদের প্রবেশাধিকার আরো সীমিত করা যায় এবং কীভাবে গেমসে তাদের দীর্ঘসময় না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করা যায়, সে বিষয়ে কাজ করবেন তারা। অনার অব কিংস এর পর, প্রতিষ্ঠানটির অন্যান্য গেমসেও বিষয়টি লাঘব করবেন তারা।

    প্রসঙ্গত, আরেক বিতর্কিত গেম পাবজির মালিকানা প্রতিষ্ঠানও টেনসেন্ট।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ১৫ জানুয়ারি ২০২০

    ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

    ০২ সেপ্টেম্বর ২০২০

  • ফেসবুকে দশদিক