• শিরোনাম

    জাপানে বাংলাদেশ দুতাবাস কর্তৃক রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী উদ্‌যাপন

    রাহমান মনি | ০৭ আগস্ট ২০১৯ | ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে 68 বার

    জাপানে বাংলাদেশ দুতাবাস কর্তৃক রবীন্দ্র-নজরুল জয়ন্তী উদ্‌যাপন

    বাংলা সাহিত্যে জ্বলজ্বলে দুই উজ্জ্বল নক্ষত্র, কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর ও জাতীয় কবি নজ্রুল ইসলামের জন্মবার্ষিকী ২০১৯ উদযাপন করেছে জাপানস্ত বাংলাদেশ দুতাবাস। কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর এর ১৫৮তম জন্মবার্ষিকী এবং জাতীয় কবি নজ্রুল ইসলামের ১২০তম জন্মবার্ষিকী পালন উপলক্ষে বাংলাদেশ দুতাবাস দুতাবাসের বঙ্গবন্ধু অডিটোরিয়ামে ২১ জুলাই ‘১৯ রোববার অপরাহ্ণে এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।
    আমন্ত্রিতদের তালিকায় প্রবাসী বাংলাদেশীদের পাশাপাশি উল্লেখযোগ্য সংখ্যক জাপানী সুহৃদরাও উপস্থিত ছিলেন ।
    আমন্ত্রিত অতিথিদের স্বাগত জানিয়ে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন জাপানে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।
    স্বাগত বক্তব্যে রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা বাংলা সাহিত্যের উজ্জ্বলতম এই দুই নক্ষত্রের অবদান নিয়ে আলোচনা করেন। তিনি তাঁদের রচিত গান, কবিতা, উপন্যাস, গল্প ও নাটকের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন। তাঁদের ধর্মনিরপেক্ষ সৃষ্টিকর্মগুলোর প্রাসঙ্গিকতা অতীতের যেকোনো সময়ের চেয়ে বেশি বলে রাষ্ট্রদূত উল্লেখ করেন।
    তিনি আরও বলেন, তাঁদের রচনাগুলো বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় বিশেষ প্রেরণা জুগিয়েছিল। স্বাধীনতার পর জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কাজী নজরুল ইসলামকে বাংলাদেশে নিয়ে আসেন ও জাতীয় কবির মর্যাদা দেন।
    কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর কে বিশ্বের একমাত্র কবি উল্লেখ করে রাষ্ট্রদূত বলেন , যার লিখা গান দুইটি দেশের জাতীয় সংগীত হিসেবে স্বীকৃত।
    অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া প্রবাসী সাংস্কৃতিক কর্মীদের উত্তরীয় পড়িয়ে দেন রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা।
    উল্লেখ্য অনুষ্ঠানে অংশ নেয়া প্রবাসী সাংস্কৃতিক কর্মীদের মধ্যে শাম্মী আক্তার বাবলী এবং নিলাঞ্জনা দত্ত ছুটি বিশ্ব ভারতী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে রবীন্দ্র সঙ্গীতের উপর স্নাতক ডিগ্রীধারী ।
    এরপর এক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেন প্রবাসী সাংস্কৃতিক কর্মীরা। মনমুগ্ধকর সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানটি রবীন্দ্রসঙ্গীত, নজরুলগীতি, নৃত্ত ও আবৃতি দিয়ে সাজানো এবং উপভোগ্য ছিল ।
    সব শেষে সকলের অংশ গ্রহনে সমবেত কণ্ঠে বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়। এসময় আমন্ত্রিত জাপানী অতিথিরাও বাংলাদেশের জাতীয় সঙ্গীত পরিবেশনায় অংশ নেন ও বাংলাদেশের খাদ্য সংস্কৃতির স্বাদ গ্রহন করেন।
    অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন দুতাবাসের প্রথম সচিব তুশিতা চাকমা।
    rahmanmoni@gmail.com

    মন্তব্য করুন

    মন্তব্য

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০২ এপ্রিল ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫১৬
    ১৭১৮১৯২০২১২২২৩
    ২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
    ৩১  
  • ফেসবুকে দশদিক