• শিরোনাম

    টিকা নেয়া প্রবাসীরা ১ আগস্ট থেকে কুয়েত যেতে পারবেন

    | ১৯ জুন ২০২১ | ১০:২০ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে 97 বার

    টিকা নেয়া প্রবাসীরা ১ আগস্ট থেকে কুয়েত যেতে পারবেন

    দেশে ছুটিতে এসে আটকে থাকা কুয়েত প্রবাসীদের মধ্যে যাদের টিকার দু’টি ডোজ সম্পন্ন হয়েছে, তারা আগামী ১ আগস্ট থেকে দেশটিতে ফিরতে পারবেন। তবে ফেরার পর তাদের প্রত্যেককে কুয়েতে ৭ দিনের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।
    গত ১৬ জুন কুয়েতের মন্ত্রিসভা এক বৈঠকে করোনাভাইরাসের কারণে পাঁচ মাসের যে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছিল, তা প্রত্যাহারের ঘোষণা দেয়ার সময় এ সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানায়।

    এ দিকে দেশে আটকে পড়া কুয়েত প্রবাসীরা দ্রুত টিকার ডোজ সম্পন্ন এবং কুয়েতে কর্মস্থলে ফেরার ব্যবস্থা নেয়ার দাবিতে আগামীকাল রোববার সকালে ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটির সাগর-রুনি মিলনায়নে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করতে যাচ্ছে। কুয়েতের বাংলাদেশী ব্যবসায়ী মারুফের উদ্যোগে আটকে পড়া প্রবাসীদের পক্ষে এই সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছে।



    গতকাল শুক্রবার কুয়েত থেকে প্রবাসী সাংবাদিক জালাল উদ্দিন দেশে এবং কুয়েতে অবস্থানরত প্রবাসী বাংলাদেশীদের সার্বিক পরিস্থিতি জানাতে গিয়ে বলেন, ১০ দিন ধরে এ দেশে ধূলিঝড় হচ্ছে। ঘর থেকে বের হওয়া যাচ্ছে না। এ নিয়ে কুয়েত সরকার এক বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, কুয়েতের আবহাওয়া পরিস্থিতি অনুকূলে না আসা পর্যন্ত বাইরে যেসব শ্রমিক কাজ করছে তারা প্রতিদিন বেলা ১১ থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত কোনো কাজ করতে পারবে না। কারণ এই ধূলিঝড়ে শ্রমিকদের অ্যালার্জি (ঠাণ্ডা কাশি সর্দি) হতে পারে। আরবিতে যাকে বলা হয় হাছাছিয়া।
    দেশে আটকে পড়া প্রবাসী বাংলাদেশীদের কুয়েত ফেরা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে সাংবাদিক জালাল উদ্দিন এ প্রতিবেদককে বলেন, দেশে যেসব শ্রমিক ছুটিতে গিয়ে এখনো আটকে আছেন, তারা এরই মধ্যে কুয়েতে ফেরার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট দফতরে স্মারকলিপি দিয়েছেন। সেই কপি আমাদেরকেও পাঠিয়েছেন।

    একই সাথে আগামী রোববার ব্যবসায়ী মারুফের উদ্যোগে সেগুনবাগিচার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে সংবাদ সম্মেলন করবেন বলে জানিয়েছেন। এক প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, আটকে পড়া শ্রমিকদের মধ্যে যাদের ভিসার মেয়াদ রয়েছে, তাদের যেন অগ্রাধিকার ভিত্তিতে ফাইজারের টিকার দু’টি ডোজ দেয়ার ব্যবস্থা নেয়া হয়। এটিই এখন তাদের দাবি। তিনি বলেন, ১৬ জুন কুয়েত মন্ত্রিসভা বৈঠক করে সিদ্ধান্ত নিয়েছে, বাংলাদেশে যেসব প্রবাসী আটকা পড়েছে, তাদের কুয়েতে ফেরার ব্যাপারে বলা হয়েছে, যারা দুই ডোজ টিকা নিয়েছে তারা আগামী ১ আগস্ট থেকে কুয়েতে আসতে পারবে। তবে তাদেরকে আসার পর অবশ্যই ৭ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে। অন্য দিকে কুয়েতে অবস্থান করা প্রায় তিন লাখ প্রবাসীর মধ্যে অর্ধেকের মতো প্রবাসী বাংলাদেশী ফাইজার ও অক্সফোর্ডের টিকা নিয়েছেন। এর মধ্যে তিনি গত ১৪ জুন একটি এবং ১৬ জুন বাকি টিকার ডোজ নিয়েছেন। দু’টিই অক্সফোর্ডের টিকা নিয়েছেন বলে জানান।

    কুয়েত প্রবাসীরা কি দেশে ফিরতে পারছেন- এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, করোনাভাইরাস শুরু হওয়ার পর থেকেই ঢাকার সাথে কুয়েতের ফ্লাইট চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে বিশেষ ফ্লাইট চলাচল করছে। এর মধ্যে কুয়েত এয়ারওয়েজ, আলজাজিরা এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট চলছে, তবে বন্ধ আছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ফ্লাইট। বিশেষ ফ্লাইটে কুয়েত থেকে যাত্রী যেতে পারবে। কিন্তু কেউ কুয়েত আসতে পারবে না। তবে যেসব প্রবাসী আর কুয়েতে ফিরবেন না তারাই বেশি বিশেষ ফ্লাইটের টিকিট কেটে দেশে ফিরছেন বলে তিনি জানতে পেরেছেন।

    কুয়েতে অবস্থানরত প্র্রবাসীদের সমস্যা সমাধানে বাংলাদেশ দূতাবাস কী ধরনের পদক্ষেপ নিচ্ছে জানতে চাইলে জালাল উদ্দিন বলেন, রাষ্ট্রদূত মেজর জেনারেল আশিকুজ্জামান যোগ দেয়ার পর থেকেই প্রবাসী শ্রমিকদের যেকোনো সমস্যা জানা এবং তা সমাধানের চেষ্টা করছেন। এর মধ্যে গত সপ্তাহে কুয়েত লেবার মিনিস্টির নামে ১৭০টি জাল ভিসা বের হওয়ার একটি কপি পায় দূতাবাস। সেই বিষয়টি জানাতে রাষ্ট্রদূত আমাদেরকে ব্রিফ করেন। তিনি বলেছেন, এ ভিসাগুলো ফলস। তিনি বলেন, রাষ্ট্রদূত দুই দিন আগে বাংলাদেশে গেছেন। তার স্থলে দায়িত্ব পালন করছেন দূতাবাসের প্রথম সচিব ও দূতাবাস প্রধান নিয়াজ মোর্শেদ।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৯ এপ্রিল ২০২০

    ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

    ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

  • ফেসবুকে দশদিক