• শিরোনাম

    টোকিওতে চতুর্থবারের মত করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জরুরি অবস্থা শুরু

    | ১৩ জুলাই ২০২১ | ১১:৫২ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে 247 বার

    টোকিওতে চতুর্থবারের মত করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জরুরি অবস্থা শুরু

    সোমবার টোকিওতে চতুর্থবারের মত করোনাভাইরাস সংক্রান্ত জরুরি অবস্থা শুরু হয়েছে। এসময়ে সংক্রমণ প্রতিরোধ প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে বার এবং রেস্তোরাঁসমূহকে অ্যালকোহল পরিবেশন না করার অনুরোধ জানানো হয়েছে।

    এছাড়া, সরকার দক্ষিণ-পশ্চিমের জেলা ওকিনাওয়ায় চলমান জরুরি অবস্থার পাশাপাশি টোকিওর পাশের তিনটি জেলা সাইতামা, চিবা এবং কানাগাওয়া’সহ পশ্চিমের জেলা ওসাকায় নিবিড় ভাইরাস-রোধী পদক্ষেপের মেয়াদও বাড়িয়ে নিয়েছে।



    বর্তমান সূচি অনুযায়ী, জরুরি অবস্থার এই ঘোষণা এবং সুনির্দিষ্ট সংক্রমণ-রোধী পদক্ষেপ সমূহ আগামী ২২শে আগস্ট পর্যন্ত অব্যাহত থাকবে।

    এই সময়কালের মধ্যে ২৩শে জুলাই থেকে ৮ই আগস্ট পর্যন্ত টোকিও অলিম্পিকের পাশাপাশি মধ্য-আগস্টের ওবোন ছুটির সময়ও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, যখন মানুষ সাধারণত নিজের শহর বা অন্যান্য পর্যটনের স্থানগুলোতে ভ্রমণ করে থাকেন।

    জনসাধারণের চলাচলের বৃদ্ধি সংক্রমণের বিস্তার ঘটাতে পারে, এমন উদ্বেগ থেকে সরকার লোকজনের কাছে পুঙ্খানুপুঙ্খ ভাইরাস-রোধী পদক্ষেপ নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছে। এছাড়া, কর্মকর্তারা ভারতে প্রথম সনাক্ত হওয়া ডেল্টা ধরনের বিস্তার নিয়েও উদ্বিগ্ন রয়েছেন।

    বার এবং রেস্তোরাঁগুলোতে সংক্রমণ রোধে সরকার, সুনির্দিষ্ট এলাকায় থাকা এই স্থাপনাগুলোকে অ্যালকোহল পরিবেশন বন্ধ করার পাশাপাশি দ্রুত কার্যক্রম বন্ধেরও আহ্বান জানাচ্ছে।

    চিফ ক্যাবিনেট সেক্রেটারি কাতো কাৎসুনোবু রবিবার এনএইচকে’র একটি টেলিভিশন অনুষ্ঠানে বলেন, পাব মালিকদের সহযোগিতা করা সহজ করার জন্য সরকার আরও দ্রুত ভর্তুকি দেয়ার বিষয়টি বিবেচনা করবে।

    উল্লেখ্য, সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনার পাশাপাশি রোগীদের গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ার ঝুঁকি কমাতে সরকার নিজেদের টিকাদান কর্মসূচি এগিয়ে নিয়ে চলেছে।

    পরিস্থিতির উন্নতি এবং চিকিৎসা ব্যবস্থার উপর চাপ শিথিল হওয়া সাপেক্ষে, সরকার নির্ধারিত সময়ের আগেই জরুরি অবস্থা তুলে নেয়ার বিষয়টি বিবেচনার পরিকল্পনা করছে।

    Facebook Comments Box

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

  • ফেসবুকে দশদিক