• শিরোনাম

    বুলবুলের তাণ্ডব, তিন জেলায় চারজনের মৃত্যু

    | ১০ নভেম্বর ২০১৯ | ১২:৪১ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে 539 বার

    বুলবুলের তাণ্ডব, তিন জেলায় চারজনের মৃত্যু

    ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে তিন জেলায় এক নারীসহ চারজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এদের মধ্যে পটুয়াখালী ও খুলনায় ঘর এবং গাছচাপা পড়ে নারীসহ তিন জন ও সাতক্ষীরায় হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে একজন মারা যান। শনিবার রাতে ও রবিবার সকালে পৃথক সময়ে এ ঘটনাগুলি ঘটে।

    খুলনা অফিস জানায়, খুলনায় ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতে ঘর চাপা পড়ে প্রমিলা মণ্ডল (৫২) নামে এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। রবিবার সকাল ১০টার দিকে দাকোপ উপজেলার দক্ষিণ দাকোপ গ্রামের এই ঘটনা ঘটে। নিহত প্রমিলা মণ্ডল দক্ষিণ দাকোপ গ্রামের সুভাষ মণ্ডলের স্ত্রী।



    স্থানীয়রা জানান, প্রমিলা মণ্ডল সাইক্লোন শেল্টার থেকে দক্ষিণ দাকোপ গ্রামের নিজ বাড়িতে প্রয়োজনীয় জিনিস নিতে আসেন। তিনি ঘরে ঢুকার পর শিরিষ ও নারকেল গাছ ঘরের ভেঙে পড়লে তিনি ঘর চাপা পড়ে ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

    এদিকে, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের চার ঘণ্টার তাণ্ডবে খুলনার উপকূলীয় উপজেলা দাকোপ ও কয়রার দুই সহস্রাধিক কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত এবং গাছপালা লণ্ড-ভণ্ড হয়ে গেছে।

    খুলনা জেলা কন্ট্রোল রুমের দায়িত্বরত কর্মকর্তা আজিজুল ইসলাম জোয়ার্দার বলেন, ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে ঘরের ওপর গাছ উপড়ে পড়ে দাকোপ উপজেলার দক্ষিণ দাকোপ গ্রামে প্রমিলা মণ্ডল নামের এক বৃদ্ধা নিহত হয়েছেন। তিনি ওই গ্রামের সুভাষ মণ্ডলের স্ত্রী। তিনি জানান, ঝড়ে কয়রা উপজেলায় দেড় সহস্রাধিক ও দাকোপ উপজেলায় তিন শতাধিকসহ খুলনা জেলায় দুই সহস্রাধিক কাঁচা ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়েছে। এছাড়া বহু গাছপালা উপড়ে ও ভেঙে গেছে।

    দাকোপ উপজেলার স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, বুলবুলের তাণ্ডবে সাত শতাধিক কাঁচা বাড়িঘর ও বহু গাছপালা বিধ্বস্ত হয়েছে।

    খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন বলেন, ঘূণিঝড়ে দাকোপ উপজেলায় প্রমিলা মণ্ডল নামে একজন নারী নিহত হয়েছেন। তবে জেলা প্রশাসনের প্রস্তুতি থাকায় বড়ো ধরনের কোনো ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

    এছাড়া দিঘলীয়া উপজেলার সেনহাটির কাতানী পাড়ার আলমগীর হোসেন (৩৫) নামে এক ব্যক্তি গাছচাপা পড়ে মারা যান। রবিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।আলমগীর হোসেন ওই গ্রামের সফিউদ্দীন মিস্ত্রির ছেলে।

    পটুয়াখালী প্রতিনিধি জানান, জেলার মির্জাগঞ্জের উত্তর রামপুরা গ্রামের হামেদ ফকির (৬০) গাছচাপা পড়ে মারা যায়। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন মির্জাগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শওকত আনোয়ার।

    সাতক্ষীরা প্রতিনিধি জানান, বুলবুলের তাণ্ডব দেখে দাবুড়া আশ্রয় কেন্দ্র থেকে বাড়ি ফেরার পথে আবুল কালাম নামে এক ব্যক্তি হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। রবিবার সকাল ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০

    ০৯ এপ্রিল ২০২০

    ২১ ফেব্রুয়ারি ২০২০

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দশদিক

  • %d bloggers like this: