• শিরোনাম

    রোজা রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মিমি চক্রবর্তী!

    | ০৩ এপ্রিল ২০১৯ | ৯:৫২ পূর্বাহ্ণ | পড়া হয়েছে 59 বার

    রোজা রাখার ঘোষণা দিয়েছেন মিমি চক্রবর্তী!

    আগামী ১১ এপ্রিল থেকে ভারতের জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ভোট শুরু। রমজানের মধ্যেই ভোট দিতে হবে মুসলিমদের। সেকারণে মুসলিম ভোটারদের কষ্ট ভাগ করে নিতে রোজা রাখার ঘোষণা দিয়েছেন যাদবপুরের তৃণমূল প্রার্থী ও জনপ্রিয় অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। নির্বাচনী জনসভায় গিয়ে মুসলিমদের উদ্দেশে এই ঘোষণা দেন তৃণমূলের এই প্রার্থী।

    ভোটের তারিখ ঘোষণার পর থেকেই তা নিয়ে আপত্তি জানিয়ে আসছে তৃণমূল। রমজান মাসের মধ্যে ভোটের সিদ্ধান্তকে প্রশ্নবিদ্ধ করে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, সংখ্যালঘু ভোটারদের অসুবিধার কথা মাথায় রেখে কমিশনের উচিত ছিল রমজান মাসে ভোট না করা।

    একই কথা বলেছেন কলকাতার মেয়র তথা রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমও। তিনি বলেন, ইচ্ছা করেই মুসলিমদের অসুবিধা করতেই রমজানের মধ্যেই ভোটের আয়োজন করা হয়েছে।

    মুসলিম অধ্যুষিত বারুইপুরের কোয়াতলায় গিয়ে রমজানে রোজা রাখার কথা ঘোষণা করেন মিমি। কোয়াতলায় একটি অনুষ্ঠানে এই তারকা প্রার্থী বলেন, আগামী ১৯ মে ভোটের দিন। ওইদিন মুসলিমরা রোজা রাখবেন। আপনাদের কথা দিচ্ছি, ওইদিন আমিও রোজা রাখব। বিকেলে আপনাদের সঙ্গেই ইফতার করব। মিমির এই প্রতিশ্রুতির পরই হাততালিতে ফেটে পড়ে পুরো মঞ্চ।

    প্রার্থী হিসেবে নাম ঘোষণার পরই যেভাবে প্রচারের ঝড় তুলছেন এই অভিনেত্রী, তাতে খানিকটা অবাক দলের অনেক কর্মীই। পুরোদস্তুর রাজনীতিকরাও এই অভিনেত্রীর সঙ্গে পেরে উঠছেন না। অনেকে বলছেন, মিমির এই রোজা রাখার ঘোষণাতেই স্পষ্ট হয়েছে যে, ভোটের আগে সাধারণ মানুষের মন বুঝতে শিখে গেছেন অভিনেত্রী।

    বিরোধীদের অবশ্য অভিনেত্রীর এই মন্তব্যে বেশ আপত্তি রয়েছে। তারা বলছেন, ভোটের আগে মুসলিমদের মন রক্ষা করা তৃণমূলের পুরনো অভ্যাস। কিন্তু এবার এসবে কাজ হবে না। কোনওভাবেই জিততে পারবেন না মিমি। তবে জয়-পরাজয়ের হিসাব অবশ্য বোঝা যাবে আগামী ২৩ মে। তার আগ পর্যন্ত প্রার্থীদের এভাবেই লড়ে যেতে হবে।

    মন্তব্য করুন

    মন্তব্য

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২
    ১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
    ২০২১২২২৩২৪২৫২৬
    ২৭২৮২৯৩০  
  • ফেসবুকে দশদিক