• শিরোনাম

    হজের টাকা উত্তোলনের আবেদন ১৩ জুলাই থেকে

    | ২৪ জুন ২০২০ | ১০:২২ অপরাহ্ণ | পড়া হয়েছে 166 বার

    হজের টাকা উত্তোলনের আবেদন ১৩ জুলাই থেকে

    চলতি বছর হজের জন্য যারা নিবন্ধন করেছেন তারা চাইলে আগামী ১৩ জুলাই থেকে নিবন্ধন বাতিল করে টাকা ফেরত নেয়ার জন্য আবেদন করতে পারবেন। সে ক্ষেত্রে হজের নিবন্ধনের পাশাপাশি প্রাক নিবন্ধনও বাতিল হয়ে যাবে। একই সঙ্গে যারা চলতি হজে যাওয়ার জন্য নিবন্ধন ও প্রাক নিবন্ধন করেছেন তাদের উভয় নিবন্ধনই আগামী বছরের হজের জন্য বহাল থাকবে। গতকাল ধর্ম মন্ত্রলায়ের জরুরি সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

    সভার পর ভিডিও বার্তায় ধর্মসচিব মো. নুরুল ইসলাম বলেন, হজের ওয়েবসাইটে নিবন্ধন ও প্রাক নিবন্ধনের মতেই নিবন্ধন বাতিলের নতুন একটি সফটওয়্যারযুক্ত করা হবে আগামী ১২ জুলাইয়ের মধ্যে। ফলে আগামী ১৩ জুলাই থেকে যারা নিবন্ধন বাতিল করে টাকা ফেরত নিতে ইচ্ছুক তারা আবেদন করতে পারবেন।



    তিনি জানান, কোন রকম সার্ভিস চার্জ কর্তন ছাড়াই সরকারি ব্যবস্থাপনার যাত্রীদের সোনালী ব্যাংক থেকে চেক বা পে অর্ডারের মাধ্যমে ফেরত দেয়া হবে। বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীরা স্ব-স্ব এজেন্সির মাধ্যমে ধর্ম মন্ত্রনালয়ে নিবন্ধন বাতিলের আবেদন করবেন। তারাও সরাসরি অথবা চেক কিংবা অনলাইন ট্রান্সফারের মাধ্যমে টাকা ফেরত নিতে পারবেন।

    Ad by Valueimpression
    ধর্মসচিব বলেন, টাকা ফেরতের ক্ষেত্রে যাতে কোন রকমের জটিলতা তৈরী না হয় তার জন্য ধর্ম মন্ত্রনালয় নিবীড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করবে। হজের প্রস্তুতির অংশ হিসেবে চিকিৎসা সরঞ্জামাদিক্রয়সহ অন্যান্য ক্রয়ের যেসব প্রক্রিয়া চলমান ছিল সেগুলো বাতিলের সিদ্ধান্ত হয়েছে এবং চিঠি দিয়ে সংশ্লিষ্টদেও জানিয়ে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

    উল্লেখ্য, সৌদি সরকার করোনা পরিস্থিতিতে ইতোমধ্যেই ঘোষণা দিয়েছে চলতি বছর কেবল সৌদি আরব অবস্থানরত স্বল্প সংখ্যক মানুষের অংশগ্রহণে চলতি বছরের হজ পালিত হবে। এই সংখ্যা দশ হাজারের বেশি হবে না এবং সকলের বয়স ৬৫ বছরের নীচে হতে হবে।

    এই প্রেক্ষিতে ধর্ম মন্ত্রনালয় গতকাল এই জরুরি সভায় হজের যাবতীয় কার্যক্রম বাতিলের সিদ্ধান্ত নেয়। চলতি বছর হজে যাওয়ার জন্য ৬৪ হাজার ৫৯৯জন নিবন্ধন করেছিল। চলতি বছর বাংলাদেশের জন্য কোটা ছিল ১ লাখ ৩৭ হাজার ১৯৮জন। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী ৩০ জুলাই হজ পালিত হবে।

    বৈঠকে সিদ্ধান্তগুলোর মধ্যে রয়েছে, চলতি বছরের প্রাক-নিবন্ধন এবং নিবন্ধন যথারীতি ২০২১ (১৪৪২ হিজরি) সালের প্রাক নিবন্ধন এবং নিবন্ধন হিসেবে কার্যকর কার্যকর থাকবে। আগামী বছর ২০২১ সালে কোনো কারণে হজ প্যাকেজ এর ব্যয় বৃদ্ধি বা হ্রাস পেলে তা বর্তমানে হজযাত্রীর জমাকৃত অর্থের সমন্বয় করা হবে। কোন হজযাত্রী নিবন্ধন বাতিল করলে একই সাথে তার প্রাকনিবন্ধন বাতিল হয়ে যাবে এবং তিনি নতুন করে প্রাক-নিবন্ধন করে হজে যেতে হবে।

    কোন হজযাত্রী হজের টাকা উত্তোলন করতে চাইলে সরকারি/বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হজ যাত্রীদের জন্য তিনি অনলাইনে মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমে আবেদন করবেন এবং কোন প্রকার সার্ভিস চার্জ কর্তন ছাড়াই তাকে তার সমুদয় অর্থ ফেরত প্রদান করা হবে। এক্ষেত্রে তার প্রাকনিবন্ধন বাতিল হয়ে যাবে এবং নতুন করে হজে যেতে চাইলে নতুন করে প্রাক নিবন্ধন করতে হবে।

    বেসরকারি হজ ব্যবস্থাপনার হজযাত্রী নিবন্ধন বাতিল করে টাকা উত্তোলন করতে চাইলে তার হজ এজেন্সির মাধ্যমে অনলাইনে আবেদন করবেন। এবং মন্ত্রণালয় তা অনুমোদন করা সাপেক্ষে হজ এজেন্সির মাধ্যমে অথবা ব্যাংকের মাধ্যমে তাদের জমাকৃত অর্থ গ্রহণ করবেন। সরকারি অথবা বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় যে সকল হজযাত্রী তাদের জমাকৃত নিবন্ধনের টাকা তুলতে চান তাদেরকে আগামী ১২ জুলাই, ২০২০ পর আবেদন করতে হবে।

    সভায় মরহুম প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহর ইন্তেকালে তার রুহের মাগফিরাত কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।

    Facebook Comments

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    ১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯

    ২৪ এপ্রিল ২০২০

    ০৩ এপ্রিল ২০১৯

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে দশদিক