• শিরোনাম

    টোকিওর উত্তরের মিতো শহরে শুরু হয়েছে প্লাম উৎসব

    | সোমবার, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 308 বার

    বসন্তের আগমনের বার্তা দেয়া প্লাম ফুলের উৎসব দেখার জন্য লোকজন এখন টোকিওর উত্তরে মিতো শহরের কাইরাকুয়েন উদ্যানে ভিড় করছেন। কাইরাকুয়েন উদ্যানকে জাপানের তিনটি সবচেয়ে সুন্দর উদ্যানের একটি হিসেবে গণ্য করা হয় এবং প্লাম ফুল দেখার চমৎকার একটি জায়গা হিসেবে পরিচিত সেই উদ্যান বিশেষ করে প্লাম উৎসব চলার সময় প্রচুর ভ্রমণকারীকে আকৃষ্ট করে। উৎসবের প্রথম দিনে গতকাল ভ্রমণকারীরা বাগানে ঘুরে বেড়ান এবং প্রায় এক সেন্টিমিটার আকারের ফুলের শোভা উপভোগ ...বিস্তারিত

    বসন্তের আগমনের বার্তা দেয়া প্লাম ফুলের উৎসব দেখার জন্য লোকজন এখন টোকিওর উত্তরে মিতো শহরের কাইরাকুয়েন উদ্যানে ভিড় করছেন। কাইরাকুয়েন উদ্যানকে জাপানের তিনটি সবচেয়ে সুন্দর উদ্যানের একটি হিসেবে গণ্য করা হয় এবং প্লাম ফুল দেখার চমৎকার একটি জায়গা হিসেবে পরিচিত সেই উদ্যান বিশেষ করে প্লাম উৎসব চলার সময় ...বিস্তারিত

    বসন্তের আগমনের বার্তা দেয়া প্লাম ফুলের উৎসব দেখার জন্য লোকজন এখন টোকিওর উত্তরে মিতো শহরের কাইরাকুয়েন উদ্যানে ভিড় ...বিস্তারিত

    যুদ্ধকালীন বিষয়াদি নিয়ে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের আলোচনা

    এইচ এম দুলাল | রবিবার, ১৭ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 660 বার

    যুদ্ধকালীন বিষয়াদি নিয়ে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের অবনতি হয়ে চলার মধ্যে দেশ দুটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এক বৈঠকে মিলিত হয়েছেন।  জার্মানির মিউনিখে, একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনের পাশাপাশি জাপানী পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারোও কোওনো এবং দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাং গিয়ং হোয়া এক বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠকে কোওনো, যুদ্ধকালীন দাবির বিষয়ে ১৯৬৫ সালে সম্পাদিত দ্বিপক্ষীয় চুক্তি অনুযায়ী যুদ্ধকালীন শ্রমের বিষয়ে দুদেশের সরকারের মধ্যে আলোচনা অনুষ্ঠানের জন্য কাংকে চাপ দেন। দক্ষিণ কোরিয়ার আদালতে প্রদত্ত একটি ...বিস্তারিত

    যুদ্ধকালীন বিষয়াদি নিয়ে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের অবনতি হয়ে চলার মধ্যে দেশ দুটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এক বৈঠকে মিলিত হয়েছেন।  জার্মানির মিউনিখে, একটি আন্তর্জাতিক সম্মেলনের পাশাপাশি জাপানী পররাষ্ট্রমন্ত্রী তারোও কোওনো এবং দক্ষিণ কোরিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী কাং গিয়ং হোয়া এক বৈঠকে মিলিত হন। বৈঠকে কোওনো, যুদ্ধকালীন দাবির বিষয়ে ১৯৬৫ সালে ...বিস্তারিত

    যুদ্ধকালীন বিষয়াদি নিয়ে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার দ্বিপক্ষীয় সম্পর্কের অবনতি হয়ে চলার মধ্যে দেশ দুটির পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা এক বৈঠকে ...বিস্তারিত

    জাপানে বিদেশি কর্মীদের পরামর্শ সেবা দেয়ার জন্য অর্থ বরাদ্দের পরিকল্পনা

    | বৃহস্পতিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 438 বার

    বিদেশি অধিবাসীদের জন্য কাউন্সেলিং বা পরামর্শ সেবা দেয়ার জন্য দপ্তর স্থাপন করতে স্থানীয় সরকারগুলোকে আর্থিক সহায়তা করবে জাপানের বিচার মন্ত্রণালয়। আগামী এপ্রিল মাস থেকে চালু হতে যাওয়া নতুন নীতির আলোকে জাপান আরও বেশি বিদেশি কর্মী গ্রহণের প্রেক্ষাপটে সব জেলা এবং অধ্যাদেশ-চিহ্নিত শহরের পাশাপাশি ৪০টি এলাকা, ওয়ার্ড এবং শহর এখন এই পরামর্শ সেবা চালুর প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছে। এই ধরণের দপ্তরগুলোতে বহু ভাষায় পরামর্শ সেবার সুযোগ থাকবে বলে প্রত্যাশা করা হচ্ছে। মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তারা বলছেন, তারা ...বিস্তারিত

    বিদেশি অধিবাসীদের জন্য কাউন্সেলিং বা পরামর্শ সেবা দেয়ার জন্য দপ্তর স্থাপন করতে স্থানীয় সরকারগুলোকে আর্থিক সহায়তা করবে জাপানের বিচার মন্ত্রণালয়। আগামী এপ্রিল মাস থেকে চালু হতে যাওয়া নতুন নীতির আলোকে জাপান আরও বেশি বিদেশি কর্মী গ্রহণের প্রেক্ষাপটে সব জেলা এবং অধ্যাদেশ-চিহ্নিত শহরের পাশাপাশি ৪০টি এলাকা, ওয়ার্ড এবং শহর এখন এই পরামর্শ ...বিস্তারিত

    বিদেশি অধিবাসীদের জন্য কাউন্সেলিং বা পরামর্শ সেবা দেয়ার জন্য দপ্তর স্থাপন করতে স্থানীয় সরকারগুলোকে আর্থিক সহায়তা করবে জাপানের বিচার মন্ত্রণালয়। আগামী ...বিস্তারিত

    টোকিওতে ‘এন্টি ভ্যালেন্টাইন’স’ ডে প্রতিবাদ

    এইচ এম দুলাল | বৃহস্পতিবার, ১৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 822 বার

    ভ্যালেন্টাইনস ডে পালনের বিরোধীতা করে দ্য কাকুমেই-তেকি হিমোট বা ইংরেজী দ্য রেভুলেশনারি অ্যালায়েন্স অব আনপপুলার মেন নামের জাপানি গ্রুপটি প্রতি বছরের ন্যয় এবারও টোকিওর সিবুহায় ‘এন্টি ভ্যালেন্টাইন’ ইভেন্ট আয়োজন করেছে। খবর: জাপানটুডে

    তীব্র শীত উপেক্ষা করে গত শনিবার ওই গ্রুপের সদস্যরা টোকিওর রাস্তায় নেমে আসে। গ্রুপটির সদস্যদের বড় একটি অংশ পুরুষরা হলেও তাদের প্রতিবাদগুলোতে নারীদের উপস্থিতি লক্ষণীয়। গ্রুপটির নেতৃত্বে আছেন তাকায়ুতকি আকিমোতু। তারা মনে করে ভ্যালেন্টাইনস আসলে ...বিস্তারিত

    ভ্যালেন্টাইনস ডে পালনের বিরোধীতা করে দ্য কাকুমেই-তেকি হিমোট বা ইংরেজী দ্য রেভুলেশনারি অ্যালায়েন্স অব আনপপুলার মেন নামের জাপানি গ্রুপটি প্রতি বছরের ন্যয় এবারও টোকিওর সিবুহায় ‘এন্টি ভ্যালেন্টাইন’ ইভেন্ট আয়োজন করেছে। খবর: জাপানটুডে

    তীব্র শীত উপেক্ষা করে গত শনিবার ওই গ্রুপের সদস্যরা টোকিওর রাস্তায় নেমে আসে। গ্রুপটির সদস্যদের ...বিস্তারিত

    ভ্যালেন্টাইনস ডে পালনের বিরোধীতা করে দ্য কাকুমেই-তেকি হিমোট বা ইংরেজী দ্য রেভুলেশনারি অ্যালায়েন্স অব আনপপুলার মেন নামের জাপানি ...বিস্তারিত

    মিন্দানাও’এর শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য দীর্ঘ মেয়াদী সহায়তার প্রতিশ্রুতি জাপানের

    | মঙ্গলবার, ১২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 370 বার

    ফিলিপাইনের মিন্দানাও দ্বীপের শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য দীর্ঘমেয়াদী সহায়তা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে জাপান। জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী তারো কোনো রবিবার ফিলিপাইনের পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রী তেওদোরো লোকসিনের সঙ্গে বৈঠক করেন। দক্ষিণাঞ্চলীয় দ্বীপ দাভাও'এ তারা বৈঠকে মিলিত হন। মিন্দানাও'এ ৪০ বছরেরও বেশি সময় ধরে সশস্ত্র সংঘাত চলার পর ২০১৪ সালে ফিলিপাইন সরকার এবং মুসলিম বিচ্ছিন্নতাবাদীদের মধ্যে একটি শান্তি চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। চুক্তিটিতে সেখানকার মুসলিম অধিবাসীদের জন্য একটি স্বায়ত্তশাসিত সরকার ব্যবস্থা প্রবর্তনের আহ্বান জানানো ...বিস্তারিত

    ফিলিপাইনের মিন্দানাও দ্বীপের শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য দীর্ঘমেয়াদী সহায়তা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে জাপান। জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী তারো কোনো রবিবার ফিলিপাইনের পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রী তেওদোরো লোকসিনের সঙ্গে বৈঠক করেন। দক্ষিণাঞ্চলীয় দ্বীপ দাভাও'এ তারা বৈঠকে মিলিত হন। মিন্দানাও'এ ৪০ বছরেরও বেশি সময় ধরে সশস্ত্র সংঘাত চলার পর ২০১৪ সালে ফিলিপাইন সরকার ...বিস্তারিত

    ফিলিপাইনের মিন্দানাও দ্বীপের শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য দীর্ঘমেয়াদী সহায়তা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে জাপান। জাপানের পররাষ্ট্র মন্ত্রী তারো কোনো রবিবার ...বিস্তারিত

    জাপানি নও-মুসলিম তোশিও কুরোদা-এর ধর্মান্তরিত হওয়ার কাহিনী

    | সোমবার, ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 1124 বার

    জাপানি নও-মুসলিম তোশিও কুরোদা তার দেশের একজন ইসলাম- বিশেষজ্ঞ ও লেখক। তিনি ইসলামী অর্থনীতির ওপর ব্যাপক গবেষণা করেছেন। তোশিও'র জন্ম হয়েছিল এক বৌদ্ধ পরিবারে। ছাত্র জীবনে ফরাসি ভাষা ও সাহিত্য কলেজের একজন অধ্যাপক তাকে ইসলাম নামক এক নতুন ও বিশাল জগতের সঙ্গে তার পরিচয় করিয়ে দেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, "আমার জন্ম হয়েছিল টোকিওতে। আমি জাতিগতভাবেই জাপানের নাগরিক। মাধ্যমিক পর্যায়ের পড়াশোনা শেষ করে একটি প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ফরাসি ভাষা ও সাহিত্য কোর্সে ...বিস্তারিত

    জাপানি নও-মুসলিম তোশিও কুরোদা তার দেশের একজন ইসলাম- বিশেষজ্ঞ ও লেখক। তিনি ইসলামী অর্থনীতির ওপর ব্যাপক গবেষণা করেছেন। তোশিও'র জন্ম হয়েছিল এক বৌদ্ধ পরিবারে। ছাত্র জীবনে ফরাসি ভাষা ও সাহিত্য কলেজের একজন অধ্যাপক তাকে ইসলাম নামক এক নতুন ও বিশাল জগতের সঙ্গে তার পরিচয় করিয়ে দেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেছেন, "আমার ...বিস্তারিত

    জাপানি নও-মুসলিম তোশিও কুরোদা তার দেশের একজন ইসলাম- বিশেষজ্ঞ ও লেখক। তিনি ইসলামী অর্থনীতির ওপর ব্যাপক গবেষণা করেছেন। তোশিও'র জন্ম ...বিস্তারিত

    বিদেশি কর্মী নেবে জাপান, স্থায়ীভাবে থাকার সুযোগ

    | রবিবার, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 4458 বার

    বিদেশি কর্মীদের ব্যাপারে জাপান তাদের নিয়ম-কানুন শিথিল করতে যাচ্ছে, যার ফলে দক্ষ কর্মীরা সেখানে স্থায়ীভাবে থাকার সুযোগও পাবেন। জাপানের মন্ত্রিপরিষদ এজন্যে ইমিগ্রেশনের নিয়ম-নীতি শিথিল করতে একটি খসড়া আইনও অনুমোদন করেছে। নতুন আইনে দু'ধরনের ভিসা ক্যাটাগরি তৈরি করা হচ্ছে, যার অধীনে কর্মী সংকট আছে এমন সব সেক্টরের জন্য বিদেশি কর্মী আনা যাবে। (৯টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের  নাম নেই)

    জাপানের ইমিগ্রেশন আইন খুবই কড়া। সেদেশে বিদেশি কর্মীর সংখ্যা খুবই কম। কিন্তু নতুন নিয়মে ...বিস্তারিত

    বিদেশি কর্মীদের ব্যাপারে জাপান তাদের নিয়ম-কানুন শিথিল করতে যাচ্ছে, যার ফলে দক্ষ কর্মীরা সেখানে স্থায়ীভাবে থাকার সুযোগও পাবেন। জাপানের মন্ত্রিপরিষদ এজন্যে ইমিগ্রেশনের নিয়ম-নীতি শিথিল করতে একটি খসড়া আইনও অনুমোদন করেছে। নতুন আইনে দু'ধরনের ভিসা ক্যাটাগরি তৈরি করা হচ্ছে, যার অধীনে কর্মী সংকট আছে এমন সব সেক্টরের জন্য বিদেশি কর্মী ...বিস্তারিত

    বিদেশি কর্মীদের ব্যাপারে জাপান তাদের নিয়ম-কানুন শিথিল করতে যাচ্ছে, যার ফলে দক্ষ কর্মীরা সেখানে স্থায়ীভাবে থাকার সুযোগও পাবেন। জাপানের ...বিস্তারিত

    জাপানের অর্থনীতির পুনরুত্থান ও বাংলাদেশের জন্য শিক্ষা

    ড. মোহাম্মদ আবদুল মজিদ: | রবিবার, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 775 বার

    বিশ্ব অর্থনীতির সমকালীন সূচকগুলো পর্যালোচনা করলে একথা স্পষ্ট হয়ে দাঁড়ায়, জাপান বর্তমান বিশ্ববাজারে একটি অন্যতম অর্থনৈতিক পরাশক্তি। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, ১৯৯৬ সালে যখন জাপানে মাথাপিছু আয় ছিল ৩৬ হাজার ৫০০ মার্কিন ডলার, তখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মাথাপিছু আয় ছিল ২৭ হাজার ৮০০ ডলার। সে বছর বিশ্ববাণিজ্যের ১০ শতাংশ ছিল একা জাপানের। বছরটিতে ৪১১ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের রফতানির বিপরীতে দেশটির আমদানির পরিমাণ ছিল ৩৪৯ বিলিয়ন মার্কিন ডলার। পরের বছর ১৯৯৭ সালে জাপানের ...বিস্তারিত

    বিশ্ব অর্থনীতির সমকালীন সূচকগুলো পর্যালোচনা করলে একথা স্পষ্ট হয়ে দাঁড়ায়, জাপান বর্তমান বিশ্ববাজারে একটি অন্যতম অর্থনৈতিক পরাশক্তি। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, ১৯৯৬ সালে যখন জাপানে মাথাপিছু আয় ছিল ৩৬ হাজার ৫০০ মার্কিন ডলার, তখন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মাথাপিছু আয় ছিল ২৭ হাজার ৮০০ ডলার। সে বছর বিশ্ববাণিজ্যের ১০ শতাংশ ছিল একা জাপানের। ...বিস্তারিত

    বিশ্ব অর্থনীতির সমকালীন সূচকগুলো পর্যালোচনা করলে একথা স্পষ্ট হয়ে দাঁড়ায়, জাপান বর্তমান বিশ্ববাজারে একটি অন্যতম অর্থনৈতিক পরাশক্তি। উদাহরণস্বরূপ বলা যায়, ...বিস্তারিত

    জাপানের খাদ্য রপ্তানি ২০১৮ সালে রেকর্ড সর্বোচ্চ

    | শনিবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 898 বার

    কৃষি এবং সামুদ্রিক পণ্যসহ জাপানের খাদ্য রপ্তানি ২০১৮ সালে রেকর্ড সর্বোচ্চ হয়েছে, কেননা বিশ্ববাসীর কাছে জাপানি খাবারের স্বাদের আকর্ষণ অব্যাহতভাবে বেড়ে চলেছে। কৃষি, বন ও মৎস্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে যে, গত বছর রপ্তানির পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৮৩০ কোটি মার্কিন ডলার বা প্রায় ৯০ হাজার কোটি ইয়েন যা ইয়েন অর্থে গত বছরের থেকে ১২% বেশি। গরুর মাংসের চালান ২৯% বেড়েছে, অন্যদিকে আপেলের রপ্তানি বেড়েছে ২৮%। উপহার সামগ্রী হিসেবে জাপানি আপেলের কদর বেড়ে ...বিস্তারিত

    কৃষি এবং সামুদ্রিক পণ্যসহ জাপানের খাদ্য রপ্তানি ২০১৮ সালে রেকর্ড সর্বোচ্চ হয়েছে, কেননা বিশ্ববাসীর কাছে জাপানি খাবারের স্বাদের আকর্ষণ অব্যাহতভাবে বেড়ে চলেছে। কৃষি, বন ও মৎস্য মন্ত্রণালয়ের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে যে, গত বছর রপ্তানির পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় ৮৩০ কোটি মার্কিন ডলার বা প্রায় ৯০ হাজার কোটি ইয়েন যা ইয়েন অর্থে গত ...বিস্তারিত

    কৃষি এবং সামুদ্রিক পণ্যসহ জাপানের খাদ্য রপ্তানি ২০১৮ সালে রেকর্ড সর্বোচ্চ হয়েছে, কেননা বিশ্ববাসীর কাছে জাপানি খাবারের স্বাদের আকর্ষণ অব্যাহতভাবে ...বিস্তারিত

    ২০৪০-এ এশিয়ার সুপারপাওয়ার জাপান!

    | শুক্রবার, ০৮ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | পড়া হয়েছে 2105 বার

    ২০৪০ সালে পূর্ব এশিয়ার নেতৃত্ব দেবে জাপান। বিজনেস ইনসাইডারে জর্জ ফ্রিডম্যান ও জ্যাকব সাপিরো তাদের প্রতিবেদনে এ ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। তাদের দাবি প্রমাণ করার জন্য তারা যুক্তিযুক্ত কারণও উপস্থাপন করেছেন। জর্জ ফ্রিডম্যান ও জ্যাকব সাপিরো দুইজনই আন্তর্জাতিক বিশ্লেষক। সারা বিশ্ব যেখানে এশিয়ার সুপারপাওয়ার হিসেবে চীনকে মনে করে সেখানে এই ভবিষ্যদ্বাণী সত্যিই বিস্ময়কর। বিশেষ করে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর জাপানকে কোণঠাসা করার জন্য যে নীতি যুক্তরাষ্ট্র নিয়েছিল তার মধ্যেই জাপানের শক্তি জেগে ওঠা সহজ ...বিস্তারিত

    ২০৪০ সালে পূর্ব এশিয়ার নেতৃত্ব দেবে জাপান। বিজনেস ইনসাইডারে জর্জ ফ্রিডম্যান ও জ্যাকব সাপিরো তাদের প্রতিবেদনে এ ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। তাদের দাবি প্রমাণ করার জন্য তারা যুক্তিযুক্ত কারণও উপস্থাপন করেছেন। জর্জ ফ্রিডম্যান ও জ্যাকব সাপিরো দুইজনই আন্তর্জাতিক বিশ্লেষক। সারা বিশ্ব যেখানে এশিয়ার সুপারপাওয়ার হিসেবে চীনকে মনে করে সেখানে এই ভবিষ্যদ্বাণী সত্যিই বিস্ময়কর। ...বিস্তারিত

    ২০৪০ সালে পূর্ব এশিয়ার নেতৃত্ব দেবে জাপান। বিজনেস ইনসাইডারে জর্জ ফ্রিডম্যান ও জ্যাকব সাপিরো তাদের প্রতিবেদনে এ ভবিষ্যদ্বাণী করেছেন। তাদের ...বিস্তারিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০  
  • ফেসবুকে দশদিক